কুকুরের আলুর দোকান!

সমাজের কথা ডেস্ক॥ সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে প্রযুক্তির উৎকর্ষতা। আর প্রযুক্তি মানুষের কাজও কামিয়ে এনেছে। এটি বললে এখন আর অত্যুক্তি হবে না, প্রায় সব কাজেই কম-বেশি প্রযুক্তির আশ্রয় নিতে হয়। তাই তো অনেক জায়গায় মানুষের বদলে আমরা রোবটের ব্যবহার দেখতে পাই। তবে মানুষ কিংবা রোবট, এর কিছুই নয়, একটা কুকুর চালাচ্ছে দোকান। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এক ভিডিওতে এমনটাই দেখা গেছে। মুহূর্তেই ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়। আলুর দোকানের ‘পরিচালক’ একটি কুকুর। এটির বয়স মাত্র তিন বছর। তার নাম কেন কুন। আর কুকুরটির দোকান জাপানের হোক্কাইডো দ্বীপে অবস্থিত। সেখানে বসেই আলু বিক্রি করছিল কুকুরটি। ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, কুকুরটি আলুর দোকানে দুই পা তুলে সামনের দিকে তাকিয়ে আছে। বিক্রি করছে আলু। লোকজন আলু কিনছে, আর দাম দিয়ে চলে যাচ্ছে।
তবে এই দোকানের একটাই সমস্যা। কুকুর টাকা ফেরত দিতে পারে না। তাই, দোকানের পাশে জাপানি হরফে লেখা রয়েছে, ‘আমি কুকুর, তাই টাকা ফেরত দিতে পারব না’। তাই ওই দোকানের ক্রেতারা আলু কেনে নির্দিষ্ট পরিমাণ দামের খুচরা দিয়ে।
জাপানের স্থানীয় এক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, কুকুরটিকে দোকানে নিয়মিত আলু বিক্রি করতে দেখা যায়। আর কাজ শেষে সন্ধ্যাবেলায় মালিকের সঙ্গে হেঁটে হেঁটে বাড়ি ফেরে।

SHARE