কেশবপুর উপজেলা নির্বাচনে দ্বিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি॥ আজ ৩১ মার্চ কেশবপুর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন। উপজেলাটিতে ১ টি পৌরসভা ও ১১টি ইউনিয়ন রয়েছে।
নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, ১টি পৌরসভা ও উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৯৩ হাজার ৫শ ৩৪ জন। এরমধ্যে পুরুষ ৯৭ হাজার ১শ ১ জন ও মহিলা ভোটারের সংখ্যা ৯৬ হাজার ৪ শত ৩৩ জন। উপজেলায় মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৭৯টি।
চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এইচএম আমির হোসেন (নৌকা)। এ পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন যশোর জেলা আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলাম (আনারস) ও জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী হাবিবুর রহমান (লাঙ্গল)। দু’ দুবার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন তৃতীয় বারের হ্যাট্রিকের আশায় দলীয় নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি নির্বাচনী যুদ্ধে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। অন্যদিকে মুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলাম আনারস প্রতীক নিয়ে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। জাতীয় পার্টির এরশাদ মনোনীত প্রার্থী হাবিবুর রহমান প্রথম দিকে মাঠে থাকলেও ঢিলেঢালা ভাবে চালিয়েছেন প্রচারণা। বিভিন্ন গ্রামে সরেজমিন গিয়ে ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রতিদ্বন্দ¦ী হবে নৌকা ও আনারস প্রতীকের মধ্যে। একই দলে দু’প্রার্থী হওয়ায় দলটির নেতা কর্মীরা দু’ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে ।
পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে কেশবপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাঈদুর রহমান সাঈদ (টিয়া পাখি), বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ রানা (উড়োজাহাজ), পলাশ মলি¬ক (তালা), কবীর হোসেন (চশমা), হাবিবুর রহমান হাবিব(টিউবওয়েল) ও মাহবুবব উজ্জ্বল (মাইক)। এই পদে সাংবাদিক সাঈদুর রহমান সাঈদ (টিয়া পাখি) ও পলাশ মল্লি¬ক (তালা) মধ্যে দ্বি-মুখি প্রতিদ্বন্দি¦তার আভাস পাওয়া গেছে। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন প্রার্থী রয়েছেন তারা হলেন বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান নাসিমা সাদেক (হাঁস) ও রাবেয়া ইকবাল (ফুটবল)।

শেয়ার