আদালত অবমাননার দায়ে সাবেক জেলা জজের দন্ড

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ফেনীর সাবেক জেলা জজ মো. ফিরোজ আলমকে আদালত অবমাননার দায়ে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছে হাই কোর্ট।

জরিমানার এই অর্থ ১৫ দিনের মধ্যে পরিশোধ না করলে সাত দিনের কারাদ- ভোগ করতে হবে সাবেক এই বিচারককে।

ষোল বছর আগে হাই কোর্টের একজন বিচারক ফেনী সফরে গিয়ে প্রটোকল না পাওয়ায় আদালত একটি রুল জারি করে। সে সময় ফিরোজ আলম ছিলেন ফেনীর জেলা জজের দায়িত্বে।

সেই রুলের ওপর চূড়ান্ত শুনানি শেষে বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামানের হাই কোর্ট বেঞ্চ বুধবার ফিরোজ আলমকে আদালত অবমাননার দায়ে দোষী সাব্যস্ত করে রায় দেয়।

পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্টের বিচারকদের ভ্রমণ ও পরিদর্শনের ক্ষেত্রে প্রটোকল ব্যবস্থা নিয়ে কয়েক দফা নির্দেশনাও দিয়েছে হাই কোর্ট।

এসব নির্দেশনা সার্কুলার আকারে জারি করতে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল ও আইন সচিবকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আদালতে ফিরোজ আলমের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ফয়সাল এইচ খান ও আইনজীবী মইন উদ্দিন টিপু। এ মামলার অপর দুই বিবাদী ফেনী জেলা জজ আদালতের দুই কর্মচারী ইয়ার আহমেদ ও আলতাফ হোসেনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন ও আইনজীবী মিনহাজুল হক চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রাফি আহমেদ।

রায়ের পর আইনজীবী মিনহাজুল হক চৌধুরী পরে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, হাই কোর্ট আদালত অবমাননার অভিযোগ থেকে ফেনী জেলা জজ আদালতের নাজির ও নায়েবে নাজিরকে অব্যাহতি দিয়েছে। তবে তৎকালীন জেলা জজ ফিরোজ আলমকে দোষী সাব্যস্ত করে জরিমানা করেছে।

SHARE