সৌদিতে আমরণ অনশনে রোহিঙ্গারা

সমাজের কথা ডেস্ক॥ বাংলাদেশে ফেরত না পাঠানোর দাবিতে সৌদি আরবের একটি বন্দিশালায় আমরণ অনশন শুরু করেছে রোহিঙ্গারা। গত চারমাসে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার অনশনে গেল তারা। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট আইয়ের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রোহিঙ্গারা আমরণ অনশন শুরু করেছে সৌদি আরবের জেদ্দায় অবস্থিত সুমায়সি বন্দিশালায়। মিডল ইস্ট আইকে রোহিঙ্গারা বলছেন, ‘আমরণ অনশন করা ছাড়া আমাদের হাতে এখন আর কোনো বিকল্প নেই। কেননা গত মাসে বেশ কিছু রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দিয়েছে সৌদি আরব।’

সুমায়সি বন্দিশালায় রোহিঙ্গাদের অনশন নিয়ে কিছু ছবি ও ভিডিও ফাঁস হয়েছে। সেসব ছবি ও ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, রোহিঙ্গারা তাদের প্রতিদিনের বরাদ্দ খাবার নিতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছেন। মেঝেতে তাদের না খাওয়া খাবারের প্যাকেট পড়ে আছে।
মিডল ইস্ট আইকে কিছু রোহিঙ্গা জানান, সুমায়সি বন্দিশালায় আটক রোহিঙ্গারা নিজেদেরকে রক্ষা করার জন্য তাদের নাম পরিবর্তন করেছেন। জাহিদ নামের একজন বলেন, হোয়াটস অ্যাপের মাধ্যমে তারা একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ করে এই আমরণ অনশন কর্মসূচি সংগঠিত করার কাজ করছেন।
জাহিদ নামের বন্দি ওই রোহিঙ্গা বলেন, ‘আমরা যখন আমাদের অনশন শুরু করি তখন সংখ্যাটাি ছিল তিনশ। পরে ধীরে ধীরে অনেকেই আমাদের এই অনশনে যোগ দিতে থাকেন। অনশনে অংশগ্রহণ করা একজন বৃদ্ধকে ইতোমধ্যে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমরা জানি না আমাদের এই অনশন কতদিন চলবে। তারা আমাদেরকে খাওয়ানোর চেষ্টা করছেন। দয়া করে আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’ তাদের কাছ থেকে জোরপূর্বক মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

শেয়ার