চেক প্রতারণা সাতক্ষীরা তাঁতী লীগ সভাপতির কারাদন্ড

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ॥ ব্যাংকে টাকা না থাকার পরও পাওনাদারকে চেক দিয়ে প্রতারণা করার অভিযোগ সত্যি প্রমাণিত হওয়ায় দোষী সাব্যস্ত করে সাতক্ষীরা জেলা তাঁতীলীগের সাবেক সভাপতি মীর আজাহার আলী শাহীনকে এক বছর কারাদন্ড ও ৩১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক অরুনাভ চক্রবর্তী এক জনাকীর্ণ আদালতে এই রায় ঘোষণা করেন। সাজাপ্রাপ্ত মীর আজাহার আলী শাহীন সাতক্ষীরা শহরের মুনজিতপুরের নবারুন স্কুল মোড়ের নিছার আলী মীরের ছেলে।
মামলার বিবরণে জানা যায়, বাটকেখালি গ্রামের আব্দুল মান্নানের আশাশুনি উপজেলার শোভনালীতে একটি ইটভাটা রয়েছে। ওই ভাটা থেকে ইট কিনে ব্যবসা করার সুবাদে আব্দুল মান্নান ২০১৪ সালের জুলাই মাস পর্যন্ত মীর শাহীনের কাছে এক কোটি ১০ লাখ টাকা পান। এই টাকার পরিবর্তে মীর শাহিন পাওনাদার আব্দুল মান্নানকে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক সাতক্ষীরা শাখার একটি চেক দেন। ওই বছরের ১২ নভেম্বর ব্যাংকে টাকা তুলতে গেলে হিসাব নম্বরে টাকা নেই বলে আব্দুল মান্নানকে জানিয়ে দেয়া হয়। ১৮ নভেম্বর মীর আজাহার আলীকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়। এরপরও জবাব না পাওয়ায় আব্দুল মান্নান ২০১৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর আদালতে মীর আজাহার আলী শাহীনের নামে মামলা দায়ের করেন। বুধবার বাদির জবানবন্দি ও নথি পর্যালোচনা শেষে বিচারক উপরোক্ত রায় দেন। এ সময় আসামি মীর আজাহার আলী শাহীন আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন না। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অতিরিক্ত পিপি অ্যাড. ফাহিমুল হক কিসলু।

শেয়ার