মোংলায় প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা ও বরখাস্তের সুপারিশ

মোংলা প্রতিনিধি॥ শিক্ষা অফিসারকে লাঞ্চিত ও অবরুদ্ধ করায় মোংলায় প্রধান শিক্ষককে বরখাস্ত ও তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করার সুপারিশ করেছে উপজেলা প্রশাসন। একই সাথে প্রধান শিক্ষকের স্ত্রী সহকারী শিক্ষিকা লিপিকা বাড়ইকে অন্যত্র বদলির নির্দেশ দেয়া হয়েছে। স্কুলের অর্থ আত্মসার্ত, প্রতিনিয়ত স্কুলে অনুপস্থিত থাকা স্ত্রীকে সহকারী শিক্ষিকা হিসেবে পোস্টিং দিয়ে অনুপস্থিত রেখে বেতন উত্তোলন করাসহ নানা অনিয়মের কারনে মোংলা উত্তর বাশতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দেব কুমার মন্ডলরে বিরুদ্ধে আইনানুক ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করে মোংলা উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার পুস্পজিৎ মন্ডল। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গত ১০ জানুয়ারী উপজেলায় শিক্ষা অফিসারের দপ্তরে এসে সহকারী শিক্ষা অফিসার পুস্পজিৎ মন্ডলকে তার দপ্তরে অবরুদ্ধ করে রাখেন প্রধান শিক্ষক দেব কুমার মন্ডল ও তার তিন সহযোগী। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মধ্যস্থতায় ১৪ জানুয়ারী সমাধনের আশ্বাসে পরিস্থিতি শান্ত হয়। সোমবার বিকালে মোংলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রবিউল ইসলাম, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শুমন্ত কুমার পোদ্দার, অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক দেব কুমার মন্ডল ও সহকারী শিক্ষা অফিসার পুস্পজিৎ মন্ডল কে নিয়ে সোমবার দুপুরে এক জরুরী বৈঠক করেন উপজেলা অফিসার্স ক্লাবে। ঘটনার সময় উপস্থিত সাক্ষী গনের সাক্ষ্য গ্রহনসহ উভয়ের বক্তব্য শোনেন তারা। পরে দোষি সাব্যস্থ হওয়ায় প্রধান শিক্ষক দেব কুমার মন্ডল কে সাময়িক বরখাস্ত ও তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়েরের জন্য শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক খুলনা বরাবর সুপারিশ করে উপজেলা প্রশাসন। এ দিকে উত্তর বাশতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দেব কুমার মন্ডল কে অন্যত্র বদলির জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট আবেদন করেছেন স্কুলটিতে পড়–য়া ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবকগণ। মোংলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার জানান, অন্যায় অনিয়ম, দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারীতা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে লাঞ্চিত আর সরকারী দপ্তরে অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনায় অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক দেব কুমার মন্ডলকে সাময়ীক বরখাস্ত ও বিভাগীয় মামলা করে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আমরা সুপারিশ করেছি। আশা করি দ্রুত এটি কার্য্যকর হবে।
এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন্ত কুমার পোদ্ধার জানান, গতকাল দুপুরে উপজেলা চেয়ারম্যান ও নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয় দেব কুমার মন্ডলকে সাময়ীক বরখাস্ত ও বিভাগীয় ব্যাবস্থা এবং তার স্ত্রীকে অন্যাত্র বদলীর যে নির্দেশনা দিয়েছেন সে ব্যাপারে অফিসিয়ালভাবে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার