যবিপ্রবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন, ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ইকবাল কবীর জাহিদকে সাবেক ছাত্রনেতা হুমকি দেওয়ার ঘটনায় অনিদিষ্টকালের জন্য ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষক পরিষদ। শনিবার দুপুরে হুমকিদাতার বিচার দাবিতে শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মানববন্ধন থেকে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।
তবে একই সময় ক্যাম্পাস থেকে নৌকা অপসারণ এবং কটুক্তি করার প্রতিবাদে অধ্যাপক ইকবাল কবীর জাহিদকে বহিস্কারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে ছাত্রলীগ।


শেখ হাসিনা হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়রা আজমীরা দাবি করেন, ক্যাম্পাস থেকে নৌকা অপসারণ করেছেন অধ্যাপক ইকবাল কবীর জাহিদ। বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে গেলে তিনি ছাত্রলীগ নিয়ে কটুক্তি করেছেন। এজন্য তারা অধ্যাপক ইকবাল কবীর জাহিদের বহিস্কার দাবি করছেন।
তবে, নৌকা অপসারণের বিষয়টি অস্বীকার করে অধ্যাপক ইকবাল কবীর জাহিদ বলেন, নৌকা বাতাসে পড়ে যেতে পারে। আমি সরাইনি। ক্যাম্পাসে র‌্যাগিং বিরোধী বিলবোর্ড টানানোতেই ছাত্রলীগ ক্ষুব্ধ হয়েছে। শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান বলেছেন, শিক্ষক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ইকবাল কবীর জাহিদকে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক এক নেতা মোবাইল ফোনে হুমকি দিয়েছেন। হুমকিদাতার বিচারের দাবিতে আমরা মানববন্ধন করেছি। বিচার না হওয়া পর্যন্ত আমরা ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দিয়েছি।
এদিকে, উদ্ভুত পরিস্থিতিতে গতকাল দুপুরেই সাংবাদিকদের ব্রিফ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন। এসময় তিনি বলেন, অধ্যাপক ইকবাল কবীর জাহিদকে ছাত্রলীগের সাবেক এক নেতা হুমকি দিয়েছে। বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। ছাত্রলীগ নৌকা ভেঙে ফেলা কিংবা পোড়ানোর যে অভিযোগ করেছে, তা সঠিক নয়।

শেয়ার