যশোরে মানিক ও আছর আলী হত্যা আসামিদের সনাক্ত করতে না পারায় আদালতে পুলিশের চূড়ান্ত রিপোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আসামিদের সনাক্ত করতে না পারায় যশোরের চাঁচড়া রায়পাড়ার মানিক ও আছর আলী হত্যা মামলার চূড়ান্ত রিপোর্ট দিয়েছে পুলিশ। ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই নজরুল ইসলাম আদালতে এ রিপোর্ট দাখিল করেন। নিহত মানিক রায়পাড়ার সেকেন্দার আলীর ছেলে ও আছর আলী সদর উপজেলার মন্ডগাতি গ্রামের জাহান আলীর ছেলে।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে, গত ২৮ মে রাতে চাঁচড়া রায়ড়ায় দুইদল মাদক কারবারীর মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে গোলাগুলি হচ্ছে। এমন সংবাদে রাত সাড়ে ৩টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখতে পেয়ে গুরুতর জখম অবস্থায় অপরিচিত দুইজনকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিচ্ছে। পুলিশ এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দুইটি শার্টার গান, দুই রাউন্ড গুলি, ৪ রাউন্ড বন্দুকের গুলি ও ৬শ’ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে। আহত দুইজনকে কর্তব্যরত চিকিৎস মৃত ঘোষণা করেন। পরদিন সকালে পরিবারের লোকেরা হাসপাতালে এসে লাশ সনাক্ত করে। তারা হলো, মানিক রায়পাড়ার সেকেন্দার আলী ও আছর আলী মন্ডলগাতি গ্রামের জাহান আলীর ছেলে। এব্যাপারে এস আই মঞ্জুরুল ইসলাম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামি দিয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে হত্যার সাথে জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার বা সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। ফলে আদালতে এ মামলার চূড়ান্ড রিপোর্ট দাখিল করেছেন তদন্ত কর্মকর্তা।

SHARE