উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে নিজেকে উৎসর্গ করার প্রত্যয়: স্বপন ভট্টাচার্য্য

নিজস্ব প্রতিবেদক ও নেহালপুর (মণিরামপুর) প্রতিনিধি ॥ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের ফুলেল শুভেচ্ছা আর ভালবাসায় সিক্ত হয়েছেন যশোর-৫ আসনের এমপি এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য। শুক্রবার বিকেলে মণিরামপুর উপজেলার নেহালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত গণসংবর্ধনায় তিনি এই ভালবাসায় সিক্ত হন।
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রুহুল আমিন গাজীর সভাপতিত্বে স্থানীয় শাহিদা সুলতানা বালিকা বিদ্যালয় মাঠে গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সংবর্ধিত প্রধান অতিথি আবেগ আপ্লুত কণ্ঠে উপস্থিত জনতার উদ্ধেশ্যে বলেন, স্বাধীনতার পর আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যকে প্রতিমন্ত্রী মনোনীত করে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা উপজেলাবাসীকে চিরকৃতজ্ঞ করেছেন। এসময় তিনি উপজেলার আপামর জনসাধারণকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও তার সুযোগ্য কন্যা সফল রাষ্ট্রনায়ক প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া প্রার্থনা করার আহবান জানান। একই সাথে তাকে মন্ত্রী নিযুক্ত করে জননেত্রী শেখ হাসিনা যে আস্থা রেখেছেন, কর্ম, নিষ্ঠা আর সততার মাধ্যমে সেই আস্থার প্রতিফলন ঘটাতে চান। কোন অনিয়ম, দুর্নীতিকে প্রশ্রয় না দেয়ার ঘোষণা দিয়ে বলেন, এজন্য দলমতের উর্ধ্বে থেকে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষিত উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে নিজেকে উৎসর্গ করারও প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি। যুবলীগ নেতা আসাদুজ্জামান আসাদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশষে অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র কাজী মাহমুদুল হাসান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন লাভলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক ফারুক হোসেন। এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সাবেক চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবুল কালাম আজাদ, উত্তম মিত্র, অ্যা ভোকেট সুব্রত ব্যানার্জী, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক, অ্যাডভোকেট বশির আহম্মেদ খান, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা খানম, হাবিবুর রহমান খান, জেলা পরিষদের সদস্য গৌতম চক্রবর্তী, এসএম ফারুক হুসাইন, আওয়ামী লীগ নেতা তারেক মির্জা, কাজী তাজাম্মুল হুসাইন টিটো, ইউপি চেয়ারম্যান মশিয়ূর রহমান, গাজী মাযাহারুল আনোয়ার, মনিরুজ্জামান মিল্টন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা কামরুজ্জামান, আমিনুর রহমান, জিএম টিপু সুলতান, যুবলীগ নেতা ইদয় সরকার, হুমায়ন নকবীর লিটন প্রমুখ।

SHARE