বাগেরহাটে নির্বাচনী সহিংসতায় আ’লী-বিএনপি’র ৬ জন আহত

বাগেরহাট প্রতিনিধি ॥ বাগেরহাট-২ আসনের সদর উপজেলার ডেমা করামাতিয়া মাদ্রাসার সামনে সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিএনপির নেতাকর্মীদের দোকান ও মাছের ডিপো ভাংচুর ও লুট করাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির ৬ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর ভোট কেন্দ্র পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিবসহ আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের ৪ নেতাকর্মীকে রাতেই বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত বিএনপি কর্মীরা অজ্ঞাত স্থানে চিকিৎসা নিচ্ছে বলে জানাগেছে।
আওয়ামী লীগের আহতরা হলেন, সদর উপজেলার ডেমা ইউনিয়নের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল ওহাব শেখ (৪৯), তাঁতীলীগ নেতা মুরাদ তরফদার (৩৫), ছাত্রলীগ কর্মী অহেদ মোস্তফা বাপ্পি (২২) ও শ্রমিকলীগের কর্মী দেলোয়ার হোসেন শেখ (৪৫)। বিএনপির আহত দুজন হলো, ডেমা ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি ও ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সজিব তরফদার (৩২) ও বিএনপি কর্মী মিন্টু তরফদার (২৫)। আহতদের সবার বাড়ি ডেমা গ্রামে।
প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানান, সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে আ’লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতাকমীরা একটি ইজিবাইকে চড়ে ডেমা করামাতিয়া মাদ্রাসার সামনে এসে বিএনপি নেতাকমীদের বন্ধ থাকা ৪টি দোকান ও একটি মাছের ডিপোতে ভাংচুর চালায়। এসময় তারা তালা ভেঙ্গে রুবেল তরফদার, লালন তরফদার, সোহাগ সরদার, মিন্টু তরফদারের দোকান ও সজিব তরফদারের মাছের ডিপোর মালামাল লুটপাট করতে থাকে। এ খবর পেয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা জড়ো হয়ে ঘটনাস্থলে গেলে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের ৬জন আহত হয়।
তবে, আওয়ামী লীগের ডেমা ইউনিয়নের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ও হামলায় আহত আব্দুল ওহাব শেখ এসব অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, তারা বিএনপির নেতাকর্মীদের কোন দোকান ভাংচুর, লুট বা তাদের মারপিট করা হয়নি। বিএনপির নেতাকমীরা পরিকল্পিতভাবে তাদের ইজিবাইক ঘিরে ধরে তাকেসহ আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের ৪ নেতাকর্মীকে পিটিয়ে আহত করেছে।
বাগেরহাট সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আক্তারুজ্জামান বাচ্চু বলেন, সংসদ নির্বাচনে পরাজয় মেনে নিতে না পেরে প্রতিশোধ পরায়ন হয়ে ডেমা ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি ইউপি সদস্য সজিব তরফদারের নেতৃৃত্বে বিএনপির সন্ত্রাসীরা পরিকল্পিতভাবে আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালিয়েছে। হামলায় ডেমা ইউনিয়নের সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতার মো. আব্দুল ওহাব শেখসহ ৪ নেতাকর্মী আহত হয়েছে।
ডেমা ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি ও ইউপি সদস্য সজিব তরফদার মুঠোফোনে জানান, আমরাতো নির্বাচনের আগে থেকেই পুলিশের গ্রেফতার ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের হামলার ভয়ে এলাকা ছাড়া। আওয়ামী লীগের সাথে তাদের সংর্ঘষের বিষয়টি অস্বীকার করে অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দোকান ভংচুর ও লুটপাট করতে দোকানে ঠুকতে গিয়ে আহত হয়ে উল্টো তাদের উপর দোষ চাপাচ্ছে।
বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহতাব উদ্দিন জানান, সোমবার রাতে ডেমা এলাকায় সংঘর্ষের খবর পেয়ে পলিশ ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এঘটনায় থানায় এখনো কোন মামলা হয়নি।

শেয়ার