যশোরে নবজাতক ‘চুরি’র ঘটনায় আটক নারীর নামে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে নবজাতক চুরির অভিযোগে আটক শিপু রানীসহ অজ্ঞাতনামা আরো ২/৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। শুক্রবার সকালে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনার পর ওইদিন রাতে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার রাইটা গ্রামের আরিফুল ইসলামের স্ত্রী আশুরা খাতুন বাদী হয়ে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় এ মামলা দায়ের করেন। এদিকে শনিবার আটক শিপু রানীকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে। আটক শিপু রানী খুলনার সোনাডাঙ্গা বউবাজার এলাকার জর্ম চন্দ্র ঘোষের স্ত্রী।
বাদীর দায়ের করা মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, গত ২৩ ডিসেম্বর তিনি যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের লেবার ওয়ার্ডে ভর্তি হন। ওইদিনই তার অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে একটি কন্যা সন্তান প্রসব করেন। এরপর তিনি কন্যা সন্তানসহ ইএক্স-৮ নম্বর বেডে অবস্থান করেন। ২৮ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ঘুমিয়ে পড়েন। ৮টা ২০ মিনিটের দিকে ঘুম থেকে জেগে দেখেন তার সন্তান কাছে নেই। এসময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে চারিদিকে খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে সাড়ে ৮টার দিকে হাসপাতাল গেটের সামনে থেকে পথচারীরা মেয়ে সন্তানসহ শিপু রানীকে আটক করে রাখে। এরপর পুলিশে খবর দিয়ে তাকে থানায় সোপর্দ করা হয়। বাদীর ধারণা আটক শিপু রানী শিশু পাচার চক্রের সদস্য হতে পারে।

শেয়ার