স্বাধীনতাবিরোধীরা নৌকার বিজয় ঠেকাতে পারবে না : শাহীন চাকলাদার

কামারুজ্জামান কামাল, ঝিকরগাছা : যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদার বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতাবিরোধীচক্র জামায়াত-বিএনপির সাথে তথাকথিত আইনজ্ঞরা জোট বেঁধেছেন। তারা আওয়ামী লীগের বিপক্ষে নির্বাচনে জয়ের দিবা স্বপ্ন দেখছেন। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন হবে না। এই দেশবিরোধী চক্র নৌকার বিজয় ঠেকাতে পারবে না। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের মানুষ ব্যালটের মাধ্যমে তাদের ষড়যন্ত্রের জবাব দেবেন।
গতকাল বিকালে ঝিকরগাছার বিএম হাইস্কুল মাঠে নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহীন চাকলাদার এসব কথা বলেন। এসময় তিনি নৌকার প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অব.) ডা. নাসির উদ্দিনকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে বিজয়ী করার আহবান জানান।
শাহীন চাকলাদার বিএনপি-জামায়াতের শাসন আমলের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত আছে। এই উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে নৌকার কোন বিকল্প নেই।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম মুকুলের সভাপতিত্বে নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী জনসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নৌকা বিজয়ী না হলে সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন ধূলিষ্যত হবে। জামায়াতের গোপন তৎপরতা রুখে দিয়ে ভোট কেন্দ্রে নৌকার কর্মীদের সক্রিয় থেকে বিজয় অর্জন করতে হবে।
যশোর-২ আসনের নৌকার প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অব.) ডা. নাসির উদ্দিন বলেন, এই নৌকা বঙ্গবন্ধুর, এই নৌকা শেখ হাসিনার। তাই নৌকার বিজয় আপনাদের বিজয়।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি একেএম খয়রাত হোসেন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলী রায়হান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মজিদ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা রোকেয়া পারভীন ডলি, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও আরবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম, জেলা মহিলা লীগের সভাপতি নূরজাহান ইসলাম নিরা, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রওশন ইকবাল শাহী ।
উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) মনিরুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. মোস্তাফিজুর রহমান মুছা, সাবেক যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক শেখ নাছিমুল হাবিব শিপার, সাবেক প্রচার সম্পাদক প্রভাষক মোর্ত্তজা ইসলাম বাবু, স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি সামছুর রহমান, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক ছেলিমুল হক সালাম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম বাপ্পী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য শামীম রেজা, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক ও যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য সেলিম রেজা, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এহসানুল হাবিব শিপলু, সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন প্রমুখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা আমজাদ হোসেন কলিম, নওশের আলী, জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রেজাউল ইসলাম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি নিয়ামত উল্যাহ, স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজল রায়হান, আমির হোসেন, শফিউদ্দিন, বদর উদ্দিন বিল্টু, আব্দুর রাজ্জাক, শাহাজান আলী, নজরুল ইসলাম, নেছার আলী, আতাউর রহমান মিন্টু, সাবেক চেয়ারম্যান জহুরুল হক, গিয়াস উদ্দিন, আমিনুর রহমান আমিন, ছাত্রলীগ নেতা তৌহিদুর রহমান, তসলিমুজ্জামান আকাশ, সালাউদ্দিন কবির পিয়াস, সাবিব আহম্মেদ অনি, ইয়াসির আরাফাত তরুন প্রমুখ।