যশোরবাসীর সাথে থাকার প্রত্যয় অমিতের

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরবাসীর সঙ্গে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন যশোর-৩ (সদর) আসনে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী অনিন্দ্য ইসলাম অমিত। রোববার রাত ১০ টায় স্থানীয় সংবাদকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এই প্রতিশ্রুতি দেন। শহরের একটি অভিজাত হোটেলে এই মতবিনিময় সভা হয়।
মতবিনিময়কালে বিএনপি নেতারা ভোটের নামে নিপীড়ন, নৈরাজ্যের বিষয় তুলে ধরেন। এই বিষয়ে করণীয় সম্বন্ধে সাংবাদিকদের কাছে পরামর্শ চান প্রার্থী অমিত।
সিনিয়র সাংবাদিকরা পরিস্থিতি যত বৈরী হোক না কেনো, শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকার পরামর্শ দেন ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থীকে। মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে রাজনীতিকদেরই মূল ভূমিকা নিতে হবে বলে মন্তব্য করে তারা এই ক্ষেত্রে ব্যাপক জনগোষ্ঠীকে ভোটের মাঠে সক্রিয় করে তুলতে প্রার্থী তথা রাজনৈতিক দলের ভূমিকা প্রত্যাশা করেন। নিন্দা করেন সন্ত্রাসী লেলিয়ে দিয়ে ভোটের মাঠ উত্তপ্ত করার অপপ্রয়াসকে।
পরে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে অমিত বলেন, ‘আমি রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। আমার বাবা আমৃত্যু মানুষের সাথে ছিলেন। তার জানাজায় দলমত নির্বিশেষে মানুষের ঢল তা প্রমাণ করে। আমিও আমার বাবার মতো মানুষের সাথেই থাকতে চাই।’
তিনি বলেন, ‘সরকারি জুলুমের কারণে গত দশ বছরের বেশিরভাগ সময় হয় গা-ঢাকা দিয়ে থাকতে হয়েছে; না হয় জেলে কাটাতে হয়েছে। সেই সময়কালে মানুষের সাথে যোগাযোগ কম হয়েছে। এখন প্রতিদিন সন্ত্রাসী হামলা হলেও ভোটের মাঠে মানুষের সাথেই আছি। ৩০ তারিখ পর্যন্ত তো থাকবোই, পরবর্তী জীবনেও যেন থাকতে পারি, সেই দোয়া করবেন।’
মতবিনিময় সভায় বিএনপি নেতাদের মধ্যে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট কাজী মুনিরুল হুদা, জেলা সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন খোকন, নগর সভাপতি সাবেক মেয়র মারুফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মুনির আহমেদ সিদ্দিকী বাচ্চু ও প্রয়াত নেতা তরিকুল ইসলামের বড় ছেলে শান্তনু ইসলাম সুমিত উপস্থিত ছিলেন। সাংবাদিকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সাবেক সভাপতি একরাম-উদ-দ্দৌলা, মিজানুর রহমান তোতা, ফকির শওকত, বর্তমান সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমান, সাবেক সম্পাদক আহসান কবীরসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মী।

শেয়ার