আওয়ামী লীগ কর্মীরা প্রস্তুত, ষড়যন্ত্রে কাজ হবে না : শাহীন চাকলাদার

যশোরে শোকাবহ জেলহত্যা দিবস পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদার বলেছেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক। সেই নির্বাচনে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। নির্বাচনী দায়িত্ব পালনের জন্য ইতিমধ্যে শুধুমাত্র যশোর সদর উপজেলাতেই আমাদের ৩০ হাজার নেতাকর্মী প্রস্তুত রয়েছে। যারা সার্বোক্ষণিকভাবে নির্বাচনী মাঠে থাকবেন।’
গতকাল শনিবার বিকালে শোকাবহ জেলহত্যা দিবসে শহরের দড়াটানায় আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেওয়ার সময় শাহীন চাকলাদার এসব কথা বলেন। তবে আলোচনা সভা হলেও সময়ের ব্যবধানে তা জনসমাবেশে রূপ নেয়।
যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি একেএম খয়রাত হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি শাহীন চাকলাদার আরো বলেন, ‘বর্তমান সরকার গত ১০ বছরে দেশের সার্বিক উন্নয়ন করেছে। একই সাথে এদেশের মানুষের মনোজগতও বদলে গেছে। এখন সবাই উন্নয়নের পক্ষে। তবে গুটি কয়েক মানুষ, যাদের দলে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার জন্যও লোক খুঁজে পাওয়া যায় না তারা ষড়যন্ত্র করছেন। ঐক্যফ্রন্ট নাম দিয়ে তারা কৌশলে এতিমের টাকা আত্মসাত করার দায়ে দণ্ডিত খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে চাইছেন। কিন্তু তা হবে না। এদেশের মানুষ আর আগের মতো নেই। এখন সবাই উন্নয়নের পক্ষে, দুর্নীতির বিপক্ষে।’
শাহীন চাকলাদার বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে। চক্রান্তকারীরা ৫ জানুয়ারির মতো ‘আগুন সন্ত্রাস’ সৃষ্টি করতে পারে। তবে পরিস্কার বলে দিতে চাই, যশোরে সন্ত্রাসগীরি চলবে না। এমন পরিবেশ সৃষ্টির পাঁয়তারা হলে আমরা মাঠে থাকবো। সাধারণ মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দিতে গতবারের মতো এবারো বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসীদের যশোরের রাজপথে নামতে দেওয়া হবে না।’


আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট জহুর আহম্মেদ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আলী রায়হান, শহর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইমাম হাসান লাল, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম জুয়েল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল, বর্তমান সভাপতি রওশন ইকবাল শাহী, সাধারণ সম্পাদক ছালছাবিল আহমেদ জিসান প্রমুখ।
জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এসএম মাহমুদ হাসান বিপুর পরিচালনায় আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মোশাররফ হোসেন, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রেজাউল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শেখ রোকেয়া পারভীন ডলি, উপ-প্রচার সম্পাদক জিয়াউল হাসান হ্যাপী, সদস্য শাহারুল ইসলাম, মশিয়ার রহমান সাগর, গোলাম মোস্তফা, কবিরুল আলম, জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আজিজুর রহমান, জেলা মহিলা লীগের সভাপতি নূরজাহান ইসলাম নিরা, শহর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহফুজা আক্তার গিনি, সাংগঠনিক সম্পাদক রেহেনা আক্তার, জেলা যুুবমহিলা লীগের সভাপতি মঞ্জুন্নাহার নাজনীন সোনালী, সহ-সভাপতি নাসিমা আক্তার জলি, কাউন্সিলর হাজী সুমন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি নিয়ামত উল্যাহ, যশোর পৌর ছাত্রলীগের আহবায়ক মেহেদী হাসান রনি, এমএম কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান প্রমুখ।

শেয়ার