২৬ অক্টোবর যশোর শিল্পকলা একাডেমির নির্বাচন ।। বিজয় নিশ্চিতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন প্রার্থীরা

সালমান হাসান
যশোর শিল্পকলা একাডেমির নির্বাচন ঘিরে জেলার সাংস্কৃতিক সংগঠন গুলোর মধ্যে বরাবরই এক ধরনের প্রতিযোগিতা চলে। নির্বাচন আসলে একাডেমির পরিচালনা পর্ষদে নিজ সংগঠনের প্রতিনিধি নিশ্চিত করতে তৎপর হয়ে ওঠে যশোরের সাংস্কৃতিক অঙ্গন। চার দিন পর ২৬ অক্টোবর শিল্পকলা একাডেমির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন। একাডেমির আসন্ন পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচনে দুটি শিবিরে বিভক্ত হয়ে ভোট যুদ্ধে নেমেছে যশোরের বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব। ঘনিয়ে এসেছে নির্বাচন। ফলে বিজয় নিশ্চিত করতে দিনমান ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন প্রার্থীরা। চলছে বিরামহীন প্রচার-প্রচারণা।
জানা গেছে, জেলা শিল্পকলা একাডেমির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনে (২০১৮-২১) স্বাধীনতার চেতনায় সংস্কৃতির শুভযাত্রা পরিষদ ও লাল-সবুজ পরিষদ নামে দুটি প্যানেল থেকে ১০টি পদে ২০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া জেলা প্রশাসক একজন নারীসহ তিনজন সদস্যকে পরিষদের সদস্য হিসেবে মনোনয়ন দেবেন। আগে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটসহ শীর্ষ সংগঠনগুলো ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচনে অংশ নিত। ঐক্যমতের ভিত্তিতে সাংস্কৃতিক সংগঠন গুলো বিভিন্ন পদে তাদের নিজ সংগঠনের প্রতিনিধির প্রার্থিতা নিশ্চিত করতো। তবে এবারের নির্বাচনে সেটার ব্যত্যয় ঘটেছে। তৃতীয় বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে চলা এই নির্বাচনে দুই শিবিরে ভাগ হয়ে অংশ নিচ্ছে জেলার সাংস্কৃতিক কর্মীরা। আগামী ২৬ অক্টোবর শুক্রবার সকাল ১০ থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলবে। সংগঠনের ৪ জন সদস্য মৃত্যুবরণ করায় একাডেমির ৯৬৮ জন সদস্যের মধ্যে ৯৬৪ জন তাদের ভোট প্রদান করবেন।
এদিকে গতকাল রোববার শিল্পকলা একাডেমি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী দুটি প্যানেলের প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় করেছেন পদাধিকারবলে একাডেমির সভাপতি জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল। এসময় বক্তব্য রাখেন, যশোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) হুসাইন শওকত, জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা নাজমুল কবীর, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহামুদ হাসান বুলু, শিল্পকলা একাডেমি নির্বাচনে সহ-সভাপতি প্রার্থী ফারাজী আহমেদ সাঈদ বুলবুল, অধ্যাপক সুকুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী দীপংকর দাস রতন, সদস্য পদ প্রার্থী মাহাবুবুর রহমান মজনু ও সানোয়ার আলম খান দুলু। মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা এএসএম কবীর ও জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা সাধন কুমার দাস।
এবার নির্বাচনে স্বাধীনতার চেতনায় সংস্কৃতির শুভযাত্রা পরিষদ প্যানেল থেকে সহ-সভাপতি পদে চাঁদের হাট যশোরের প্রতিষ্ঠাতা ফারাজী আহমেদ সাঈদ বুলবুল ও জেলা উদীচীর সহ-সভাপতি আমিনুর রহমান হিরু, সাধারণ সম্পাদক পদে তির্যকের প্রতিষ্ঠাতা ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব দীপংকর দাস রতন, যুগ্ম সম্পাদক পদে ধারা’র নির্বাহী পরিচালক ও নাট্যশিল্পী লিপিকা দাশগুপ্তা, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক আহসান হাবিব পারভেজ এবং সদস্যের ৫টি পদে জেলা উদীচীর সহ-সভাপতি শ্রমিক নেতা মাহবুবুর রহমান মজনু, সরকারি কৌশুলী অ্যাডভোকেট সোহেল শামীম আশিষ, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শিশু সাহিত্যিক হাবিবুর রহমান মিলন, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব আনিসুজ্জামান পিন্টু ও নাট্যশিল্পী নাসির উদ্দিন মিঠু।
অপরদিকে, লাল-সবুজ পরিষদে প্রার্থীরা হলেন সহ-সভাপতি পদে পুনশ্চ’র প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক সুকুমার দাস, আশাবরির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক পদে সূরধুনীর সাধারণ সম্পাদক ও জেলা শিল্পকলা একাডেমির বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহামুদ হাসান বুলু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে সাংস্কৃতিক সংগঠন শেকড় যশোরের সাধারণ সম্পাদক রওশন আরা রাসু ও ডায়মন্ড চিলড্রেন থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক চঞ্চল সরকার। সদস্য পদে পাঁচজন হলেন, বিবর্তন যশোরের সভাপতি নাট্যাভিনেতা ও নির্দেশক সানোয়ার আলম খান দুলু, তির্যক যশোরের উপদেষ্টা শহিদুল হক বাদল, নৃত্যবিতানের সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহারিয়ার আলম বাবু, সাংবাদিক সরোয়ার হোসেন ও যশোর শিল্পী গোষ্ঠীর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাট্যাভিনেতা আশিষ মুখার্জি।

SHARE