যশোরের দড়াটানা থেকে চাঁচড়া পর্যন্ত রাস্তার দখলদার উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত

ভৈরব খনন ও উচ্ছেদ বিষয়ে উন্নয়ন সভায় অসন্তোষ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর শহর সংলগ্ন ভৈরব নদীসহ দড়াটানা থেকে চাঁচড়া পর্যন্ত রাস্তার দখলদার উচ্ছেদে নামবে জেলা প্রশাসন। দখলদার উচ্ছেদে দ্রুত অভিযান চালানো হবে। উন্নয়ন কাজের স্বার্থে অবৈধ দখল উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। গতকাল রোববার যশোর কালেক্টরেট ভবনে জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে জেলা উন্নয়ন কমিটির মাসিক সভায় এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভায় অভিযান পরিচালনার জন্য অতি দ্রুত সংশ্লিষ্ট দফতরের সমন্বিত কর্মপরিকল্পনার মাধ্যমে কর্মসুচি বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
যশোরের জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়ালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই উন্নয়ন সমন্বয় সভায় পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু বলেন, যশোর শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড় দড়াটানা থেকে চাঁচড়া পর্যন্ত সড়ক দুই লেনে প্রশস্ত করার কাজ দ্রুতই শুরু হবে। তিনি দড়াটানা মোড় ও আরবপুর মোড়ের সৌন্দর্য বৃদ্ধিসহ উন্নয়নের জন্য ট্রাফিক আইল্যান্ড স্থাপন করতে মোড় দুটির প্রশস্ততা বৃদ্ধির দাবি জানান। পাশাপাশি শহর সংলগ্ন ভৈরব খননের কাজে ধীর গতির সমালোচনা করেন তিনি।
সভায় সিভিল সার্জন দিলীপ কুমার রায় বলেন, যশোরের তিনটি উপজেলা স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের ক্ষেত্রে সারা দেশের মধ্যে বিশেষ অবস্থান অর্জন করেছে।
জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ভবতোষ কান্তি সরকার ছাগলের পিপিআর রোগের সমন্বিত টিকাদান কার্যক্রম পরিচালনার জন্য উপজেলা পরিষদের চেযারম্যানসহ নির্বাহী কর্মকর্তাদের সহযোগিতা চান। এসময় তিনি জানান, সাম্প্রতিক ঝিকরগাছা উপজেলাকে ছাগলের পিপিআর রোগমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।
সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) হুসাইন শওকত, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) দেবপ্রসাদ পাল, কেশবপুর পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম মোড়ল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কর্মচারীসহ জেলা উন্নয়ন সভায় অংশগ্রহণকারী জেলার সকল সরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। সভা থেকে পানি উন্নয়ন বোর্ড, জেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের অংশগ্রহণে বাস্তবমুখী ও কার্যকরী কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

SHARE