কিমের ‘প্রেমে’ ট্রাম্প

সমাজের কথা ডেস্ক॥ চিঠি বিনিময়ের পর উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উন ও তিনি ‘পরস্পরের প্রেমে পড়েছেন’ বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
শনিবার ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় এক সমাবেশে সমর্থকদের সামনে এমন মন্তব্য করেন ট্রাম্প, জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
ট্রাম্প ও কিম বলেছেন, কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত করার লক্ষে তারা কাজ করতে চান। চলতি বছরের জুনে সিঙ্গাপুরে এক নজিরবিহীন বৈঠকে মিলিত হয়ে তারা এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেন।
এর আগে কয়েক দশক ধরে যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে প্রকাশ্য শত্রুতা বিরাজ করছিল। শত্রুতার এই পর্বটি উল্টে দেওয়ার আগে এই দুই নেতাও নিয়মিত হুমকি বিনিময় করেছেন এবং পরস্পরের প্রতি অপমানজনক উক্তি করেছেন।
যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত হানা যায় এমন ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির চেষ্টাও চালিয়ে গেছে উত্তর কোরিয়া।
কিন্তু ট্রাম্পের এ মন্তব্যের পর একদা বৈরি এই দুই নেতার সম্পর্ক এখন অন্য উচ্চতায় উঠেছে বলে মনে করা হচ্ছে।
ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় সমাবেশে ট্রাম্প বলেন, “আমি ছিলাম অনমনীয়, তিনিও তাই। আমরা বাক্য চালাচালি করছিলাম। এরপর আমরা প্রেমে পড়লাম, ঠিকাছে? না, সত্যিই- তিনি আমাকে সুন্দর সুন্দর চিঠি লিখেছেন, সেগুলো চমৎকার চিঠি।”
তার এ কথায় সমর্থকরা হাসতে থাকেন ও করতালি দেন। কিমকে নিয়ে এ ধরনের কথাকে অনেক পর্যবেক্ষকই ‘অপ্রেসিডেন্টসুলভ আচরণ’ হিসেবে দেখবেন বলে এ সময় অভিযোগ করেন ট্রাম্প।

SHARE