মণিরামপুরে রাজাকারের ভাইয়ের নামে স্কুল নাম ও স্থান পরিবর্তনের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবাদ সম্মেলন


নিজস্ব প্রতিবেদক, মণিরামপুর ॥ মণিরামপুরে উদ্বোধনকৃত স্কুলের নাম ও স্থান পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা। সম্প্রতি উপজেলার কুখ্যাত আফসার রাজাকারের ভাই নিছার আলীর নামে ‘রানডেভেল্পমেন্ট নিছার আলী মেমোরিয়াল অটিস্টিক ও প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়’ উদ্বোধন করা হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধাদের অভিযোগ নিছার আলী তার ভাই কুখ্যাত রাজাকার আফসার আলীর সহযোগী ছিলেন। বুধবার মণিরামপুর প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে এই দাবি জানানো হয়। এ সময় উপস্থিত ১০ জন মুক্তিযোদ্ধার পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলার মশ্মিমনগর ইউনিয়নের সদ্য বিলুপ্ত মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার আব্দুল হাকিম।
লিখিত বক্তব্যে দাবি করা হয়, মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালিন কুখ্যাত রাজাকার আফসার আলীর নেতৃত্বে উপজেলার নোয়ালি গ্রামের ডাঃ দ্বীন আলী, মাস্টার আজিজুর রহমান ও ডাঃ আনিছুর রহমানকে একই ইউনিয়নের রামপুর মোড় নামক স্থানে নিয়ে হত্যা করা হয়। এছাড়াও আফসার ও তার সহোদর নিছার আলীর নেতৃত্বে উপজেলার রাজবাড়ি গ্রামের শান্তি কুমার বিশ্বাস, ঝাঁপা বাঁওড়ের ম্যানেজার আব্দুল গফুর, পারখাজুরা গ্রামের মোকাম মাস্টার, মনোহরপুর গ্রামের কেরামত আলী, হাজরাকাটি গ্রামের মোন্তাজ মোড়ল, রামপুর গ্রামের আব্দুল মজিদ গাজী, রমজান গাজী, মশ্মিমনগর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা এরশাদ আলী, নোয়ালি গ্রামের মোসলেম সরদারের বাড়িতে লুটপাট, অগ্নিসংযোগ করে এবং একই গ্রামের ইজ্জত আলীর স্ত্রী, বজলে গাজীর স্ত্রী, ফজলে গাজীর স্ত্রীসহ নারীদের উপর পাশবিক নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করা হয়।
এ সময় উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধা এরশাদ আলীর পুত্র হাসান আলী বলেন, আফসার আলী ও তার সহোদর নিছার আলীর নেতৃত্বে তাদের বাড়ি ঘর জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছিল।
উল্লেখ্য, গত ৩১ মে নিছার আলীর নামে ‘রান ডেভেল্পমেন্ট নিছার আলী মেমোরিয়াল অটিস্টিক ও প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়’ উদ্বোধন করেন স্থানীয় এমপি স্বপন ভট্টাচার্য্য। এরই জের ধরে মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্বজনরা এই সংবাদ সম্মেলন করেন। বিদ্যালয়ের নাম ও স্থান পরিবর্তনের দাবিতে আগামীতে মুক্তিযোদ্ধাসহ সাধারন জনগণকে সাথে নিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচিরও ঘোষণা দেয়া হয় সংবাদ সম্মেলনে।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্য মুক্তিযোদ্ধার মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়নের সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নারায়ন চন্দ্র সরকার, মুক্তিযুদ্ধচলাকালিন কমান্ডার মতিউর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা সিদ্দিকুর রহমান, জিন্নাত আলী, ইনছার আলী, মশিয়ার রহমান, আব্দুল বারি, হাবিবুর রহমান, আবু দাউদ প্রমূখ।

শেয়ার