বাঘারপাড়ায় নাশকতা ও বিস্ফোরক মামলা টিএস আইয়ুবসহ ৩৭ জনের নামে চার্জশিট

1

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাঘারপাড়ার একটি নাশকতা ও বিস্ফোরক মামলার চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ইঞ্জিনিয়ার টিএস আইয়ুবসহ ৩৭ জনকে অভিযুক্ত করে তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আব্দুল মতিন যশোর আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন।
অভিযুক্ত অন্যরা হলেন, বাঘারপাড়ার পশ্চিমা গ্রামের হাফিজুর রহমান বিশ্বাস, তৌহিদুর রহমান তুহিন, ধলগ্রামের মিকাইল মোল্যা, হানিফ মোল্যা, মনিরুজ্জামান, তরিকুল ইসলাম কাজী, ইউনুচ আলী সরদার, সেলিম সরদার, সেলিম সরদার, আগড়া গ্রামের নজিবুর রহমান, আনিসুর রহমান, খবির উদ্দিন আহম্মেদ, খয়বার হোসেন মোল্যা, প্রেমচারা গ্রামের শাওন মোল্যা, শামীম মোল্যা, খলসি গ্রামের আব্দুল হালিম মোল্যা, অন্তাইখোলা গ্রামে আব্দুল ওহাব মোল্যা, পারকুল গ্রামের লাল মিয়া, আবু হুরাইরা মিম, বাঘারপাড়ার আব্দুল ওহাব বিশ্বাস, আব্দুল হাই মোল্যা, পুকুরিয়া গ্রামের আব্দুর রশিদ, বাশুয়াড়ী গ্রামের সুরত আলী, বলরামপুর গ্রামের বিল্লাল হোসেন, বোয়ালিয়া গ্রামের রবীন্দ্র নাথ, শ্রীরামপুর গ্রামের সোহরাব হোসেন মোল্যা, আব্দুল ওহাব তরফদার, জামদিয়ার আশরাফ আলী বিশ্বাস, আজিজুর রহমান বিশ্বাস, ভাঙ্গুড়া গ্রামের ইবাদুল ইসলাম মোল্যা, দোহাকুল গ্রামের সোহরাব মোল্যা, মাহামুদপুর গ্রামের আনছার আলী খান, রামনগর গ্রামের আমজাদ আলী মোল্যা, পাকেরালী গ্রামের শহিদ মোড়ল, মাগুরা সদর উপজেলার ভায়না গ্রামের বাপ্পী শেখ ও যশোর শহরের মোল্যাপাড়ার লিমন শেখ।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, গত ১ ফেব্রুয়ারি রাতে বিএনপির নেতাকর্মীরা বাঘারপাড়া ডিগ্রি কলেজ মাঠে নাশকতার উদ্দেশ্যে জড়ো হয়। খবর পেয়ে গভীর রাতে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১০ জনকে আটক করে। আটক ব্যক্তিরা পুলিশকে জানায় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ইঞ্জিনিয়ার টিএস আইয়ুবের পরামর্শে ও সহায়তায় নাশতকার উদ্দেশ্যে তারা বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিল।
এ ব্যাপারে এসআই শুধাংশু কুমার মিত্র বাদী হয়ে ৩৮ জনের নাম উল্লেখসহ বেশ কিছু অজ্ঞাতনামা আসামি দিয়ে থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে ওই ৩৯ জনকে অভিযুক্ত করে তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে এ চার্জশিট করেন।