পিতা ও শ্বশুরের মধ্যে বিরোধ অভয়নগরে নববধূর আত্মহত্যা


নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ পিতা ও শ্বশুরের মধ্যে সৃষ্ট বিরোধের জের ধরে আত্মহত্যা করেছেন নববধূ অনামিকা মন্ডল (২০)। মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। রাত সাড়ে ১২টার দিকে পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে স্বামীর বাড়ির লোকজন অনামিকার পিতার বাড়ি থেকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। অনামিকা মণিরামপুর উপজেলার পোড়াডাঙ্গা গ্রামের পূর্ণকুমার মন্ডলের ছেলে চন্দন মন্ডলের স্ত্রী ও অভয়নগর উপজেলার সাভারপাড়া গ্রামের স্বপন কুমার মন্ডলের মেয়ে।
এস আই তোরাব আলী জানান, এক মাস আগে দু’পরিবারের সম্মতিতে অনামিকা ও চন্দনের বিয়ে হয়। এরপর থেকে দেনাপাওনাসহ বিভিন্ন কারণে তার পিতা ও শ্বশুরের মধ্যে মনমালিন্য হয়। এক পর্যায়ে মেয়ে স্বামীর বাড়ি থেকে মঙ্গলবার বিকালে অনামিকা পিতার বাড়িতে চলে আসে। রাতে খাবারের পরে নিজ রুমের আড়ার সাথে গলায় শাড়ি পেঁচিয়ে অনামিকা আত্মহত্যা করেন। খবর পেয়ে স্বামীসহ তার পরিবারের লোকজন পুলিশের সহযোগিতায় রাত সাড়ে ১২টার দিকে লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পরে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

SHARE