যশোরে উদ্ধার হওয়া শিশুটি সেল্টার হোমে

সুমাইয়া (৯) নামের এক শিশুকে কোতোয়ালি মডেল থানার পুলিশ উদ্ধার করে মানবাধিকার সংগঠন রাইটস যশোর’র জিম্মায় প্রদান করেছে। শিশুটিকে গত সোমবার বাঘারপাড়া ধলগাহ থেকে স্থানীয় ইউপি সদস্য জাহিদ হোসেন উদ্ধার করে এবং পরবর্তীতে তার অভিভাবকের খুঁজতে বিভিন্ন লোকজনের সাথে যোগাযোগ করে। কিন্তু ঠিকানা ও অভিভাবকের খোঁজ না পেয়ে তিনি শিশুটিকে বসুন্দিয়া পুলিশ ফাঁড়িতে হস্তান্তর করেন। বসুন্দিয়া পুলিশ শিশুটির সঠিক ঠিকানা না পেয়ে মঙ্গলবার বিকালে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় হস্তান্তর করে এবং সাথে সাথে রাইটস যশোরকে অবহিত করে। পরবর্তীতে রাইটস থানায় সাধারণ ডায়েরির মাধ্যমে শিশুটিকে নিজেদের জিম্মায় গ্রহণ করে। রাইটস যশোর’র তথ্যানুসন্ধান কর্মকর্তা মো: বজলুর রহমান সঠিক ঠিকানা সম্পর্কে জানার জন্যে শিশুটির সাথে কথা বলেন। শিশুটির প্রাথমিক ভাষ্য মতে তার বাড়ি যশোর সদরের বসুন্দিয়া এলাকায় এবং জঙ্গল বাধাল প্রাইমারি স্কুলে পড়াশোনা করেছে বলে জানায়। সে আরো বলে, তার পিতা হান্নান ঢাকায় প্রাইভেট কার চালক। কিন্তু সে তার পরিবারের কোন সদস্যের মোবাইল নম্বর বলতে পারেনি এবং কেন সে একা সেখানে গিয়েছিল তাও বলতে পারেনি। বর্তমানে শিশুটি যশোরস্থ ঢাকা আহছানিয়া মিশনের শেল্টার হোমে অবস্থান করছে।

শেয়ার