মোরেলগঞ্জে আবারও হত্যাকান্ড

মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধি॥ জোড়া হত্যার ঘটনার এক সপ্তাহের মাথায় আবারও হত্যাকান্ড ঘটেছে বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়নের বলইবুনিয়া গ্রামে সোহাগ খান(৩২) নামে এক যুবককে হত্যা করেছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। সোহাগ ওই গ্রামের মৃত ইছাহাক আলী খানের ২য় সংসারের একমাত্র সন্তান। এই ঘটনাটিও জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ঘটেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এর পূর্বে গত ২২ ডিসেম্বর পূর্ব সোনাখালী গ্রামে ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে পলাশ শেখ ও ইব্রাহিম শেখ নামে দু’জন খুন হন।
শুক্রবার বেলা ৯টার দিকে থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেম করাতে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে। নিহত সোহাগের মা জাহানারা বেগমের অভিযোগ, বসতবাড়ির জমিজমা নিয়ে সৃষ্ট বিরোধের কারণে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে সোহাগকে। তার ঘরের পিছনের দরজায় একটি তালা ও সামনের দরজা বাইরে থেকে বেঁধে রেখেছে ঘাতকেরা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোহাগের মাথায়, পিঠে আঘাত ও হাতের আঙ্গুলে কাটা চিহ্ন দেখা গেছে। নাক ও কান থেকে প্রচুর রক্ত ক্ষরণ হয়েছে।
জাহানারা বেগম আরো বলেন, রাত ১০টার দিকে সোহাগ ভাত খেয়ে শুয়ে পড়ে। মধ্যরাতে একটি ফোন পেয়ে সে ঘরের বাইরে যায়। সকালে বাড়ির অদূরে রাস্তার উপর পাওয়া যায় সোহাগের রক্তাক্ত মৃতদেহ। খবর পেয়ে নিকটস্থ পোলেরহাট ফাঁড়ি পুলিশ প্রথমে ঘটনাস্থলে আসে। পরে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। এদিকে থানার ওসি মো. রাশেদুল আলম এই ঘটনাটি সড়ক দুর্ঘটনা বলে দাবি করেছেন। তবে কখন, কোন গাড়ি এই ‘দুর্ঘটনা’ ঘটিয়েছে সে বিষয়ে পুলিশ কিছু জানাতে পারেনি।

শেয়ার