বিএনপির সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় এরশাদ

সমাজের কথা ডেস্ক॥ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ বলেছেন, আগামী নির্বাচন তার দল এককভাবে করবে কি না, তা নির্ভর করছে বিএনপির সিদ্ধান্তের উপর। সোমবার পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি। এরশাদ বলেন, “জাতীয় পার্টি এককভাবে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিলেও তা চূড়ান্ত হয়নি। বিএনপির সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করছে সেই সিদ্ধান্ত।”
২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটে থেকে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল জাতীয় পার্টি। বিএনপির বর্জনের মধ্যে ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে এককভাবে অংশ নেয় দলটি।
দশম সংসদ নির্বাচন এককভাবে করে সংসদে বিরোধী দলের আসন নিলেও সরকারেও যোগ দেয় জাতীয় পার্টি। এরশাদ নিজে হন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত।
বিএনপি নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানিয়ে এলেও তাতে জাতীয় পার্টির সায় না থাকার কথা জানান এরশাদ।
তিনি বলেন, “সরকার ভালো অবস্থানে আছে। যথাসময়ে নির্বাচন হবে এবং সংবিধান অনুসারে প্রধানমন্ত্রীর অধীনেই হবে।”
রংপুরে সদ্য সমাপ্ত সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সন্তোষ প্রকাশ করে এরশাদ বলেন, “এমন (ভোট) যদি সারাদেশে করতে পারে, তবে ইতিহাসে নির্বাচন কমিশনের নাম লেখা হবে।”
সকাল ১১টায় কুয়াকাটায় পৌঁছালে পুলিশের পক্ষ থেকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এরশাদকে।
তার সঙ্গে ছিলেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও পটুয়াখালীর সংসদ সদস্য এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার।

শেয়ার