প্রধানমন্ত্রীর আস্তার প্রতিদান দিতে আগামী নির্বাচনে রাজপথে সক্রিয় থাকবে নারীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর জেলা যুব মহিলা লীগের প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথি আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য পীযুষ কান্তি ভট্টাচার্য্য বলেছেন, ‘বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির এক ক্লান্তিকালে যুব মহিলালীগ প্রতিষ্ঠা করেন। যে সংগঠনের নেতাকর্মীরা বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে নির্যাতন উপেক্ষা করে রাজপথে থেকে সাহসিকতার প্রমাণ দিয়েছেন। ভবিষ্যতেও এই নেতাকর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর আস্তার প্রতিদান দেবেন। তার নৌকা প্রতীকের জয় নিশ্চিত করতে রাজপথে সক্রিয় থাকবেন।’
আগামী ৩১ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যশোর আগমন উপলক্ষে গতকাল শহরের সিসিটিএস মিলনায়তনে জেলা যুব মহিলা লীগের এক প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
প্রতিনিধি সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদার বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের কারণে দেশের মানুষের আর্থিক উন্নতি হয়েছে। পুরুষের পাশাপাশি বর্তমানে নারীদের আর্থিক অবস্থা ভাল হচ্ছে। সমাজে তাদের মর্যাদা বাড়াতে সরকার নানা পদক্ষেপ নিয়েছে। এখন গ্রামের কোন বাড়িতে ছনের ঘর নেই। মানুষের জীবনমানের উন্নতি হচ্ছে। কিন্তু এই উন্নয়ন বিরোধীরা দেশের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করে যাচ্ছে। যার নেতৃত্বে আছেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। দেশের মানুষের স্বার্থে এই চক্রান্ত আমাদের প্রতিহত করতে হবে। আগামী নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীদের জয়ী করে শেখ হাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী করতে হবে।’


আনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য নাজমা আক্তার বলেন, ‘বাংলাদেশের অর্ধেকের বেশি নারী। এদেশের নারীদের ক্ষমতায়নে অন্য কোন সরকার তেমন কোন ভূমিকা না রাখলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার তা করেছে। তাই নারী জাতির স্বার্থে আবারো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনতে হবে। যেহেতু বাংলাদেশের ভোটারদের অর্ধেকের বেশি নারী। তাই আগামী নির্বাচনে জয়ী হতে যুব মহিলা লীগকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে। এজন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এখন থেকে রাজপথে থেকে সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করতে হবে।’
জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি মঞ্জুন্নাহার নাজনীন সোনালীর সভাপতিত্বে প্রতিনিধি সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম মনির, সাংগঠনিক সম্পাদক বেনাপোল পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম লিটন, যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি কেশোয়ারা সুলতানা সালমা, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহানাজ পারভীন ডলি, সাংগঠনিক সম্পাদক শারমিন সুলতানা শর্মী, শিক্ষা প্রশিক্ষণ ও পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক এমবি কানিজ, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক তানিয়া হক, যশোর জেলা মহিলা লীগের সভাপতি নূর জাহান ইসলাম নিরা প্রমুখ।

শেয়ার