ট্রাম্পের জেরুজালেম ঘোষণা বাতিলে এবার সাধারণ পরিষদে বৈঠক

সমাজের কথা ডেস্ক॥ নিরাপত্তা পরিষদে জেরুজালেম প্রস্তাব যুক্তরাষ্ট্রের ভিটোর কারণে ভেস্তে যাওয়ার পর এবার বিষয়টি নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসছে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ।
আরব ও মুসলিম দেশগুলোর অনুরোধে বৃহস্পতিবার বিরল এ অধিবেশন বসছে।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘জেরুজালেকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসাবে স্বীকৃতির’ ঘোষণা বাতিলের প্রস্তাব এখন এ পরিষদে তোলা হবে।
জাতিসংঘে ফিলিস্তিনের দূত রিয়াদ মনসুর বলেছেন, সাধারণ পরিষদ ট্রাম্পের ঘোষণা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে পেশ করা খসড়া প্রস্তাবনা নিয়ে ভোটাভুটি করবে।
১৫ সদস্যের জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে যুক্তরাষ্ট্র গত সোমবার এ প্রস্তাবেই ভিটো দিয়েছিল।
মিশরের তৈরি করা ওই খসড়া প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্র এবং ট্রাম্পের বিষয়টি বিশেষভাবে উল্লেখ করা না হলেও জেরুজালেমের মর্যাদা নিয়ে সাম্প্রতিক যে সিদ্ধান্ত এসেছে তা নিয়ে গভীর দুঃখ প্রকাশ করা হয়।
নিরাপত্তা পরিষদের ১৫টি দেশের মধ্যে ১৪টিই এ প্রস্তাবে সায় দিলেও ওয়াশিংটনের ভিটোতে প্রস্তবটি নাকচ হয়ে যায়।
১৯৫০ সালের একটি প্রস্তাবনার ধারায় বলা হয়েছে, নিরাপত্তা পরিষদ কোনো বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হলে সাধারণ পরিষদে জরুরি বিশেষ অধিবেশন ডেকে সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে। এ পরিষদে নূন্যতম দুই-তৃতীয়াংশ ভোট পেলে প্রস্তাব পাস হবে।
ফিলিস্তিনের জাতিসংঘ দূত মনসুর বলেছেন, সাধারণ পরিষদে প্রস্তাবনাটি বিপুলভাবে সমর্থন পাবে বলেই আশা করছেন তিনি।

শেয়ার