রিয়াদে ‘হুতিদের ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্র ঠেকাল’ সৌদি আরব

সমাজের কথা ডেস্ক॥ সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে ইয়েমেন থেকে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে হুতি বিদ্রোহীরা। একটি রাজপ্রাসাদ লক্ষ্য করে বিদ্রোহীরা এ হামলা চালানোর দাবি করেছে।
তবে সৌদি আরবের আকাশ প্রতিরক্ষা বাহিনী ক্ষেপণাস্ত্রটি রুখে দিয়েছে বলে জানিয়েছে সৌদি নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশন।
এ ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে কোনও হতাহতের ঘটনা বা ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।
ইয়েমেনের ইরান-সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীরা তাদের আল মাসিরাহ টিভি চ্যানেলের খবরে মঙ্গলবার রিয়াদের আল-ইয়ামামা রাজপ্রাসাদ লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার দাবি করে।
এক হুতি মুখপাত্র বলেছেন, ইয়ামামা প্রাসাদের রাজদরবারই ছিল হামলার লক্ষ্য। সেখানে সৌদি নেতাদের বৈঠক চলছিল।
রিয়াদের বাসিন্দারা বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। তাছাড়া, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা ভিডিওতে আকাশে ধোঁয়ার মেঘও দেখা গেছে।
সৌদি সরকার পরিচালিত ‘সেন্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল কমিউনিকেশন’ টুইটারে লিখেছে, “রিয়াদের দক্ষিণে ইরানপন্থি-হুতিদের একটি ক্ষেপণাস্ত্র রুখে দেওয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করে জানিয়েছে কোয়ালিশন বাহিনী। এ ঘটনায় কেউ হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি।”
সৌদি বাহিনী এর জবাবে ইয়েমেনের সানায় হুতি অবস্থানগুলোতে বিমান হামলা চালিয়েছে বলে জানিয়েছে আল আরাবিয়া টিভি।
ইয়েমেনে সশস্ত্র হুতি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে আসছে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশন।

ইয়েমেনে যুক্তরাষ্ট্র এবং সৌদি আরবের এ হীন আগ্রাসণের জবাবেই মঙ্গলবার রিয়াদের প্রাসাদ লক্ষ্য করে বুরকান-২ ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে বলে আল মাসিরাহ ওয়েবসাইটে জানিয়েছে হুতিরা।
হুতিরা এর আগেও একাধিকবার সৌদি আরবে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে। গত ৪ নভেম্বরে হুতিরা রিয়াদের কিং খালেদ বিমানবন্দর লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ে। সে ক্ষেপণাস্ত্রটিও সৌদি আরব রুখে দেয়।

শেয়ার