বেনাপোলে হোটেল মালিককে অভিযুক্ত করে শ্রমিক হত্যা মামলার চার্জশিট

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বেনাপোলের সোনার বাংলা আসাসিক হোটেলের শ্রমিক মুন্না হত্যা মামলার চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। হোটেল মালিক আবু তালেবকে অভিযুক্ত করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)’র পরিদর্শক শেখ শহিদুল ইসলাম যশোর আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন। অভিযুক্ত আবু তালেব বেনাপোলের সাদীপুর গ্রামের বেলতলাপাড়ার মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে। এ মামলা থেকে তালেবের স্ত্রী ও ছেলেকে অব্যাহতি দিতে আবেদন করা হয়েছে।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, শার্শা উপজেলার বহিলাপোতা গ্রামের ভ্যান চালক জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মুন্না বেনাপোলের সোনার বাংলা আবাসিক হোটেলে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। ২০১৬ সালের ৯ মে অপরিচিত এক ভ্যানচালক গুরুতর আহত অবস্থায় মুন্নাকে তার খালার বাড়ি এনে রেখে যায়। মুন্নার পিতা সংবাদ পেয়ে তাকে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। মুন্না আহতের ব্যাপারে হোটেল মালিক আবু তালেব তাকে জানান সে ছাদ থেকে পড়ে গেছে। অবস্থার অবনতি হলে ১১ মে মুন্নাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেলে মারা যায় মুন্না।
এ ব্যাপারে নিহতের পিতা বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি দিয়ে পেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা করেন। প্রথমে থানা এবং পরে পিবিআই মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব পায়। তদন্ত শেষে হোটেল মালিক আবু তালেবকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি জড়িত থাকার অভিযোগ না পাওয়ায় আবু তালেবের স্ত্রী নুর নাহার বেগম ও ছেলে মিলন হোসেনের অব্যাহতির আবেদন করা হয়েছে।

শেয়ার