জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ কুয়াদার দুই হোটেল থেকে জরিমানা আদায়

কুয়াদা (যশোর) প্রতিনিধি ॥ যশোর সদরের কুয়াদা বাজারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বাজার তদারকি টিম অভিযান চালিয়ে দুই হোটেল মালিককে জরিমানা করছে। দই তৈরিতে বিএসটিআই এর লাইসেন্স না থাকা, নোংরা পরিবেশে মিষ্টি ও দই সংরক্ষণ, পণ্যে মূল্য তালিকা না থাকা এবং ওজনে কারচুপি করায় গতকাল ভাই ভাই মিষ্টান্ন ভান্ডার, সাতক্ষীরা ঘোষ ডেয়ারি থেকে এ জরিমানা আদায় করা হয়। জাতীয় ভোক্তাঅধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর যশোরের সহরকারী পরিচালক সোহেল শেখের নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়। তাকে সহযোগিতা করেন যশোর ক্যাবের সদস্য আব্দুর রকিব সর্দার ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।
সূত্র জানায়, যশোর সদরের কুয়াদা বাজারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বাজার তদারকি টিম মঙ্গলবার দুপুর ১২ টায় ভাই ভাই মিষ্টান্ন ভান্ডারে কাঁচা মাছ, দই ও ছানা একত্রে ডিপ ফ্রিজে সংরক্ষণ করা দেখতে পায়। তখন এ টিম ৩ কেজি দই ও ২ কেজি ছানা জব্দ করে ধ্বংস করে। অভিযানে বাজার তদারকি টিম দেখতে পায় দই তৈরিতে বিএসটিআই’র লাইসেন্স নেই। নোংরা পরিবেশে মিষ্টি ও দই সংরক্ষণ, পণ্যের মূল্য তালিকা না থাকায় এবং ওজনে কারচুপি জন্য মালিক নারায়ন চন্দ্র সাহাকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪৩ ধারা অনুযায়ী ৪ হাজার টাকা জরিমানা করে।
অপরদিকে, সাতক্ষীরা ঘোষ ডেয়ারিতে পণ্যের মূল্য তালিকা না থাকায়, দই তৈরিতে বিএসটিআইয়ে লাইসেন্স না থাকায়এবং ওজনে করাচুপি জন্য ২০০৯ এর ৩৮ ধারা অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানের মালিক কার্তিক ঘোষকে ৩ হাজার টাকাসহ মোট ৭ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। এছাড়াও কুয়াদা বাজারের বিভিন্ন ব্যবসায়ী ও ভোক্তাদের মধ্যে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ২০০৯ বিষয়ক লিফলেট ও পোস্টার বিতরণ করা হয়।

শেয়ার