মাছ চাষে বিশেষ অবদান যশোরে ২০ ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা ও ক্রেস্ট প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে মাছ উৎপাদনে বিশেষ অবদান রাখায় ১৬ ব্যক্তি ও ৪টি সমিতির প্রতিনিধিকে সম্মাননা ক্রেস্ট দেওয়া হয়েছে। সোমবার জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের সমাপনীতে জেলা প্রশাসন ও মৎস্য অধিদপ্তরের উদ্যোগেএ সম্মাননা প্রদান করা হয়। দুপুরে জিলা স্কুল অডিটোরিয়ামে পুরস্কার বিতরণ, আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান খান। জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ডক্টর শেখ শফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বৃহত্তর যশোর জেলার মৎস্য চাষ উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক হরেন্দ্র নাথ সরকার ও যশোর বিএফআরআইয়ের স্বাদু পানি উপকেন্দ্রের সিনিয়র বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা শফিকুজ্জোহা।
সম্মাননা প্রাপ্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- মধুমতি মৎস্য হ্যাচারির সত্ত্বাধিকারী একরামুল কবির ও জহুরুল ইকবাল, ইউনাইটেড এক্সো ফিসারিজের সত্ত্বাধিকারী মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী, মাতৃ ফিস হ্যাচারি এন্ড ইন্টিগ্রেটেড ফার্মের জাহিদুর রহমান গোলদার, যশোর সদর মৎস্যবীজ উৎপাদন খামারের ক্ষেত্র সহকারী এএনএম লুৎফুল হাসান, সোনা মৎস্য প্রজেক্টের সত্ত্বাধিকারী আতিয়ার রহমান টুটুল, মোল্যা ফিস নার্সারির সত্ত্বাধিকারী মাকিবুর রহমান, মৎস ও মৎস্যজাত পণ্য প্রক্রিয়াজাত ও রপ্তানীকরণে এমইউসি ফুডের শ্যামল দাস, ঈভা ফিস হ্যাচারির ইন্দ্রজিত বর্মণ, ন্যাশনাল ফিস হ্যাচারির আমিরুল হক, আল্লার দান মৎস্য হ্যাচারির মশিয়ার রহমান, শাহ আলী মৎস্য খামারের নুরুল ইসলাম বাবু, তরফদার মৎস্য চাষ প্রকল্পের মফিজুর রহমান, শাওন মৎস্য চাষ প্রকল্পের রেজাউর রহমান শাওন, চৌগাছার ওলিয়ার রহমান, ঝিকরগাছার মোশাররফ হোসেন, মেসার্স মালগুনী মৎস্য খামারের মিজানুর রহমান বাবুল, বাওড় ব্যবস্থাপনা ও মাছ উৎপাদনে বুকভরা বাওড়, অভয়নগরের পুড়াখালী বাওড়, মণিরামপুরের হরিহরনগর বাওড় এবং সমাজ ভিত্তিক মাছ চাষ ব্যবস্থাপনায় মণিরামপুর নেহালপুর লখাইডাঙ্গা ফসল ও মৎস্য চাষ সমবায় প্রকল্প।
উপস্থিত অতিথিবৃন্দ সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করেন।

শেয়ার