তালায় প্রতিবন্ধি বিধবার পানের বরজ তছনছ॥ অভিযোগ ছোট ভাইয়ের বিরুদ্ধে

তালা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি॥ তালায় প্রতিবন্ধি বিধবা রাবেয়া বেগমের বাঁচার একমাত্র অবলম্বন ১ বিঘা জমির পানের বরজ রাতের আধাঁরে ভেঙ্গে তছনছ করেছে দূর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে, ১৯ জুলাই রাতে তালা উপজেলার রহিমাবাদ গ্রামে।
জানাযায়, তালা উপজেলার মোবারকপুর গ্রামের মৃত ছাদেক শেখের প্রতিবন্ধি কন্যা রাবেয়া বেগম (৬৫) আপন ভাই আঃ হাকিম শেখ তার প্রতিবন্ধি বোনকে শুধু ভিটা-মাটি থেকে তাড়িয়ে দিয়ে খ্যান্ত হয়নি, মাতৃকুল থেকে প্রাপ্য প্রায় তিন একর জমির মধ্যে রাবেয়ার প্রাপ্য ৬৭ শতক জমি জাল দলিলের মাধ্যমে আতœস্বাৎ করেছে। এদিকে বাকী মাত্র ১ বিঘা নিজ নমীয় রেকর্ডীয় সম্পত্তিতে করা পানের বরজ সহ চতুর্পাশের বেড়া গত ১৯ জুলাই রাতের আধাঁরে দর্বৃত্তরা ভেঙ্গে তছনছ করে দিয়েছে। এ ব্যাপারে অসহায় রাবেয়া প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
গতকাল প্রতিবন্ধী রাবেয়া বেগম তালা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে কান্না জড়িত কন্ঠে জানান ৩০/৪০ আগে, বিধবা হয়ে দরিদ্র পিতার অভাবের সংসারে আশ্রয় নেন তিনি। ছোট ভাই আঃ হাকিমের বয়স যখন একদেড় বছর তখন পিতার মুত্যু হয়। পিতার অকাল মৃত্যুতে জীবিকার তাগিদে অন্যের দুয়ারে ঝি এর কাজ করে একমাত্র ছোট ভাই আঃ হাকিম শেখকে লালন-পালন করতে করতেই বয়েসের ভারে আজ নুজ্ব্য রাবেয়া বেগম। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস আদরের সেই ছোট ভাই হাকিম প্রতিবন্ধি রাবেয়াকে শুধু ভিটা-মাটি থেকে তাড়িয়ে দিয়ে খ্যান্ত হয়নি, মাতৃকুল থেকে প্রাপ্ত প্রায় তিন একর জমির মধ্যে রাবেয়ার প্রাপ্য ৬৭ শতক জমি জাল দলিলের মাধ্যমে আতœস্বাতের পাঁয়তারা করছে। বাকী নিজ নমীয় রেকর্ডীয় মাত্র ১ বিঘা সম্পত্তিতে করা রাবেয়ার পানের বরজের চতুর্পাশের বেড়া ভেঙ্গে গুড়িয়ে দিয়েছে হাকিমের সন্ত্রাসীরা।
প্রতিবন্ধি রাবেয়া আরও জানায়, কয়েক বছর আগে হাকিম ঠিকমত সংসার চালাতে পারতো না। নুন আনতে পান্তা ফুরানো সেই হাকিম এখন আলিশান বাড়ির মালিক। তালা সেটেলমেন্ট অফিসে দালালী আর জাতিয়াতি চক্রের হোতা এখন কোটি পতি। সেটেলমেন্টকে পূঁজি করে প্রতারনার মাধ্যমে জিরো থেকে কোটিপতি বনে যাওয়া হাকিম তার আপনবোন রাবেয়াকেও ক্ষমা করেনি। পৈত্রিক ভিটা থেকে তাড়িয়ে তার ৬৭ একর জমি আতœস্বতের চেষ্টা করছে। প্রতিবন্ধি রাবেয়া কাঁদতে কাঁদতে তার জীবনের কাহিনি বলে শুধু আল্লাহর কাছে বিচার দাবী করেন।

শেয়ার