যশোরে ট্রাক, থ্রি-হুইলার ও মোটরসাইকেল চুরি

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরে ট্রাক, থ্রি-হুইলার ও মোটরসাইকেলসহ পৃথক তিনটি চুরির ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। সদর উপজেলার রহেলাপুর গ্রাম থেকে ট্রাক চুরি, উপশহর স্ট্যান্ড থেকে থ্রি-হুইলার এবং এমকে রোডের হোটেল নাজমার সামনে থেকে মোটরসাইকেল চুরি হয়।
শহরতলীর শেখহাটি গ্রামের খা’পাড়ার মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে আক্কাস আলী মোল্যা মামলায় উল্লেখ করেছেন, বাদীর নিজস্ব ক্রয়কৃত (যশোর-ড-১১-০৮১০) ট্রাকটি সদর উপজেলার রহেলাপুর গ্রামের মৃত হাশেম আলীর ছেলে ইউসুফ আলী পরিচালনা করতেন। প্রতিদিন রাতে তার বাড়ির সামনে ট্রাকটি রেখে দিতেন। দিনের বেলায় চালিয়ে গত ডিসেম্বর রাত ১১টার দিকে ট্রাকটি বাড়ির সামনে রেখে দেন। পরদিন ভোর ৫টার দিকে দেখেন ট্রাকটি নেই। বিভিন্নস্থানে খুঁজে কোথাও তার সন্ধান পায়নি। ফলে গতকাল মঙ্গলবার এব্যাপারে ট্রাক মালিক বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন।
চৌগাছা উপজেলার সলুয়া পূর্বপাড়ার মৃত বদর উদ্দিনের ছেলে পিন্টু বিশ্বাসের দায়ের করা মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, বাদীর ক্রয়কৃত থ্রি-হুইলারটি উপশহর স্ট্যান্ড থেকে চুড়ামনকাটি রোডে চলাচল করে। উপশহর খালপাড় এলাকার বাবু বাবুর্চির ছেলে সুমন ওই গাড়িটি মাঝে মধ্যে বদলি চালক হিসেবে চালাতেন। গত ৮ ডিসেম্বর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বদলি চালক হিসেবে গাড়িটি চালিয়ে চুড়ামনকাটির দিকে রওনা দেন। এরপর আর ওই গাড়ি নিয়ে সুমন ফিরে আসেনি। বাদীর ধারণা সুমনের পিতা বাবু বাবুর্চি ও মাতা মর্জিনা বেগমের সহায়তায় পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী থ্রি-হুইলার গাড়িটি চুরি করা হয়েছে। এঘটনায় সুমন, তার পিতা ও মাতার বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়েছে।
অপরদিকে হাফিজুর রহমান নামে এক ব্যক্তি তার (খুলনা মেট্রো-হ-১২-৩৬১০) নম্বর নিজস্ব হিরো প্যাশন প্রো মোটরসাইকেল নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে খাওয়া-দাওয়া করতে যান শহরের হোটেল নাজমাতে। কয়েক মিনিট পরে ফিরে দেখেন মোটরসাইকেলটি নেই। এঘটনায়ও অজ্ঞাতনামা আসামি দিয়ে হাফিজুর রহমান থানায় মামলা করেছেন।

শেয়ার