চৌগাছায় একই দিনে দুই গৃহবধূসহ তিনজনের মৃত্যু

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি ॥ যশোরের চৌগাছায় এক গৃহবধুর মৃত্যু নিয়ে এলাকায় নানা গুঞ্জন শুরু হয়েছে। এটি হত্যা না প্রকৃত সাপের কামড়ে মৃত্যু তা নিয়ে চলছে নানা গুঞ্জন। এদিকে একই দিনে দুই গৃহবধুসহ এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।
একাধিক সূত্র জানায়, উপজেলার মাঠচাকলা গ্রামের আনিছুর রহমানের স্ত্রী দুই সন্তানের মাতা রেকসোনা খাতুন (৩৫) সোমবার রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। গভীর রাতে তাকে বিষধর সাপে দংশন করেছে বলে তার স্বামী দাবি করেন এবং চিৎকার দেন। স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় রাত ২ টার তাকে চৌগাছা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। কিন্তু প্রতিমধ্যে তার মৃত্যু হয়েছে বলে চিকিৎসক জানান। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জানান, মৃত্যুর শিকার গৃহবধুর গলায় সাপের কামড়ের মত চিহৃ আছে। এ খবর পেয়ে থানা পুলিশ হাসপাতালে উপস্থিত হয়। মঙ্গলবার দুপুরে নিজ গ্রাম মাঠচাকলায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবর স্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়েছে। এদিকে গৃহবধু রেকসোনার মৃত্যু নিয়ে এলাকায় নানা গুঞ্জন হচ্ছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন জানান, আনিছুর রহমানের দুই স্ত্রী। দু’স্ত্রী থাকার কারনে ওই সংসারে প্রায় ঝগড়াঝাটি হতো। একারনে তাকে হত্যা করা হয়েছে নাকি সাপের কামড়ে মৃত্যু হয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। অবশ্য নিহতের স্বজনরা সাপের কামড়েই তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন। এস আই শাহীনুর রহমান শাহীন জানান, পরিবারের লোকজন সকলে সাপে কামড়ে মৃত্যু হয়েছে বলে জানান। সেকারনে লাশ দাফনের জন্য দিয়ে দেয়া হয়েছে। এদিকে একই দিনে উপজেলার শাহাজাদপুর গ্রামের আব্দুল মমিনের স্ত্রী শিরিনা বেগম (৩৫) ও ধুলিয়ানী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শহিদুল ইসলামের মা কদবানু বেগম (১১০) ইন্তেকাল করেছেন। মঙ্গলবার বাদ জোহর জানাজ শেষে পারিবারিক কবর স্থানে তাদের দাফন সম্পন্ন হয়।

শেয়ার