যশোরে নিহত চীনা নাগরিকের লাশ হস্তান্তর

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরের উপশহরে নিহত চীনা নাগরিক চেং হে সং এর লাশ তার স্ত্রী ট্রমা লাইনসহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। গত শুক্রবার রাত পৌনে ১০টার দিকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতাল মর্গ থেকে স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তরের পর রাতেই ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এদিকে চীনা নাগরিক চেং হে সং এর লাশের ময়না তদন্তের    প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে শুক্রবার রাতেই। ময়না তদন্ত টিমের প্রধান যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের ডা. হুসাইন সাফায়েত রাত সাড়ে ৮টার দিকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে এ প্রতিবেদন হস্তান্তর করেন। এই তদন্ত প্রতিবেদনের কপি নিহতের স্বজন চ্যান মওলানকে দেয়া হয়েছে। অপরদিকে চীনা নাগরিক চেং হে সংকে তার টাকা আত্মসাতের জন্য পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে আটক দুই আসামির আদালতে দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি থেকে জানা গেছে।
যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ভরাপ্রাপ্ত (ওসি) ইলিয়াস হোসেন জানান, আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্নের পর শুক্রবার রাতে নিহত চীনা নাগরিকের লাশ তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এরপর রাতেই তারা তার লাশ ঢাকায় নিয়ে যান। সূত্র জানায়, লাশ গ্রহণ করেন নিহতের স্ত্রী ট্রমা লাইন। একই সাথে হত্যাকারীদের কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া যশোর কমার্স ব্যাংকের ২ লাখ টাকার একটি চেক ও ২৬ হাজার ৩০০ টাকা স্বজনদের কাছে বুঝে দেয়া হয়। এ সময় ঢাকাস্থ চীনা দূতাবাসের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল ডেভিড টিংয়ের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল সেখানে উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ১৫ ডিসেম্বর যশোর উপশহর আবাসিক এলাকার ২ নম্বর সেক্টরের ৩৪ নম্বর বাড়ি থেকে চীনা নাগরিক চেং হে সং এর হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। গত ১৪ ডিসেম্বর তাকে হত্যা করা হয়। চেং হে সং এর কর্মচারী নেত্রকোনা সদরের চকপাড়া এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে নাজমুল হাসান পারভেজ ও তার ভাই রফিকুল ইসলাম বাবলুর ছেলে মোক্তাদির আহমেদ রাজু তাকে খুন করেন। অভিযুক্ত এই দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার আটক দুজন হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (আমলি-সদর) বুলবুল ইসলাম তাদের জবানবন্দি রেকর্ড করেন। জবানবন্দিতে তারা খুনের পরিকল্পনা ও হত্যাকা-ের বর্ণনা দেন। এর আগে উপশহর ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ এসআই আব্দুর রহিম হাওলাদার বাদী হয়ে হত্যাকা-ের ঘটনায় আটক দুজনকে আসামি করে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন। সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, নিহত চেং হে সং এর বাড়ি চীনের আই হুই প্রদেশে। তার পিতার নাম মৃত চেং কং লি।

শেয়ার