চৌগাছায় যুবককে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা

dsc_4879নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরের চৌগাছায় তুহিন হোসেন (২৯) নামে এক যুবককে হাতুড়ি ও রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে যশোরের চৌগাছা উপজেলার দেবীপুর বাজারে বাবুর মুদি দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহত তুহিন উপজেলার হাকিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের মাঠচাকলা গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে। ভুক্তভোগীর দাবি, তার বোনকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বখাটেরা এই হামলা করেছে। তবে পুলিশ বলছে, পারিবারিক বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তুহিন জানান, দীর্ঘদিন থেকে একই গ্রামের কাদের হোসেনের ছেলে জুয়েল তার (তুহিনের) বোনকে বিরক্ত করে আসছিল। বিষয়টি জানতে পেরে তিনি গত মঙ্গলবার প্রতিবাদ করেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে জুয়েল গত শুক্রবার (০২ডিসেম্বর) রাতে বন্ধু আকরাম, আশা ও আলমকে সাথে নিয়ে মারপিটের জন্য তার বাড়িতে আসে। কিন্তু বাড়িতে না পেয়ে সন্ত্রাসীরা ওই রাতে ফিরে আসে। পরে শনিবার সকালে বাড়ি থেকে স্থানীয় মুদির দোকানে আটা নিতে আসলে জুয়েল, আকরাম, আশা ও আলম তাকে ধরে বাজারের উপরে হাতুড়ি ও রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে।
এ সময় তার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে আসলে জুয়েলসহ অন্যরা পালিয়ে যায়। এ সময় স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় বিকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক কাজল মল্লিক জানান, আঘাতে তুহিনের দুই হাতের কবজি ও আঙ্গুল এবং পায়ের গোড়ালি ভেঙ্গে গেছে।
চৌগাছার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হামলার ঘটনা স্বীকার করে বলেন, পারিবারিক বিরোধের জের ধরে তুহিনের উপর হামলা হয়েছে। ভুক্তভোগীরা অভিযোগে দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার