ফিলিপাইনে মুসলিম বিদ্রোহী-সেনা সংঘর্ষে নিহত ২৩

philipan
সমাজের কথা ডেস্ক॥ ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলীয় দ্বীপ বাসিলানে ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সঙ্গে সম্পর্কিত আবু সায়েফ বিদ্রোহীদের সঙ্গে সেনাদের সংঘর্ষে ২৩ জন নিহত হয়েছেন। রোববার দেশটির সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর ফিলেমোন তান এসব কথা জানিয়েছেন।
তান জানান, বাসিলানে আবু সায়েফের একটি ঘাঁটিতে আক্রমণ করে সামরিক বাহিনী। ইসনিলোন হাপিলোনের নেতৃত্বাধীন ঘাঁটিটিতে প্রায় ১২০ জন বিদ্রোহী ছিল। দুপক্ষের মধ্যে ১০ ঘন্টার লড়াইয়ে ১৮ সেনা নিহত ও ৫৩ জন আহত হন। পাশাপাশি পাঁচ বিদ্রোহী নিহত হওয়ার কথাও জানান তিনি। শনিবারের এ লড়াইয়ে নিহত বিদ্রোহীদের মধ্যে হাপিলোনের পুত্র উবাইদা এবং মরক্কোর নাগরিক মোহাম্মদ খাত্তাব রয়েছেন। এছাড়া লড়াইয়ে ২০ বিদ্রোহী আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।
এই লড়াইয়ের বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে আবু সায়াফের কোনো বিবৃতি পাওয়া যায়নি। গোষ্ঠীটি জোর করে অর্থ আদায়, অপহরণ, শিরশ্ছেদ এবং বোমা হামলার জন্য কুখ্যাতি অর্জন করেছে।
বিদ্রোহী নেতা ইসনিলোন হাপিলোনের মাথার দাম হিসেবে পাঁচ মিলিয়ন ডলার পুরস্কার ঘোষণা করে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
খ্রিস্টান অধ্যুষিত ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলে তৎপর মুসলিম বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে আবু সায়াফ অপেক্ষাকৃত ছোট হলেও সবচেয়ে নৃশংস।
বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা ভিডিওতে ইরাক ও সিরিয়ায় তৎপর মুসলিম জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের প্রতি আনুগত্য স্বীকার করেছে গোষ্ঠীটি।
মার্চ, ২০১৪-তে ফিলিপাইন সরকার বৃহত্তম মুসলিম বিদ্রোহী গোষ্ঠী মোরো ইসলামিক লিবারেশন ফ্রন্টের সঙ্গে একটি শান্তিচুক্তি স্বাক্ষর করে। ওই চুক্তিতে দক্ষিণাঞ্চলে মুসলিমদের স্বায়ত্তশাসনের দেওয়ার মাধ্যমে গোষ্ঠীটির সঙ্গে সরকারের ৪৫ বছরের লড়াইয়ের অবসান হয়।
দীর্ঘ সময় ধরে চলা এই লড়াইয়ে এক লাখ ২০ হাজার মানুষ নিহত ও প্রায় ২০ লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছিলেন।

শেয়ার