পুলিশ পরিচয়ে যশোর মুজিব সড়কে সেই মার্কেটে তালা, লুটের চেষ্টা

policepolice
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ ডিবি পুলিশ পরিচয়ে যশোর শহরের মুজিব সড়কের সেই ভিআইপি মার্কেটের গোডাউন ও দোকানে তালা লাগিয়ে দেয়া হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মার্কেটের দোকান থেকে মালিক-কর্মচারী ও ক্রেতাদের বের করে দিয়ে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে লুটপাটের চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। অথচ এই মার্কেট নিয়ে আদালতে মামলা চলছে ও ব্যাংকের ঋণ রয়েছে।
কিন্তু অনৈতিকভাবে ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক শরিফুল প্রতিপক্ষের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে যা খুশি তাই করছেন বলে অভিযোগ করেছেন মার্কেটের অপরপক্ষ হাবিবুর রহমান।
স্থানীয় ব্যবসায়ী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে যশোর ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে কয়েকজন এবং রায়পাড়ার বিএনপি কর্মী আব্দুল হাসিব বাবু ওই সৌমিক মার্কেটে হানা দিয়ে ব্যবসায়ীদের হুমকি ধামকি দেয়। এসময় তারা আরআরএফ পরিচালিত পোশাকের দোকান ঐতিহ্য ও পার্লার, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ তসলিমুর রহমানের দোকান কয়েন ফ্যাশন ও এপেক্স সু’র গোডাউনে তালা লাগিয়ে দিয়ে লুটপাটের চেষ্টা চালায়।
এক ব্যবসায়ী জানান, ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক শরিফুল ইসলামসহ তার সাথে থাকা কয়েকজন ডিবি পুলিশ লেখা কোটি পরে অস্ত্র হাতে মার্কেটের সামনে দাঁড়িয়েছিল আর বাবু ও সৌমিক দোকানে তালা ঝুলিয়ে দেয়।
এব্যাপারে ডিবির উপ-পরিদর্শক শরিফুলের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। আর ডিবির ওসি আলী আহমেদ হাশমী সাংবাদিকদের জানান,ওই মাকের্টে ডিবির কোন ফোর্স যায়নি। বিষয়টি তিনি খোঁজ নিয়ে দেখবেন বলে জানান।
ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান বলেন, মার্কেট নিয়ে মতবিরোধ সৃষ্টি হওয়ায় আদালতে মামলা করা হয়েছে। যার নম্বর ১৪/২০১৪। শুনানির দিন আছে আগামি ১২ এপ্রিল। যা এখনো বিচারাধীন আছে। পাওয়ার অব অ্যার্টনির বলে তিনি ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে ভবন নির্মাণসহ কাজ করেছেন। এখন মতিউরের অংশ ফিরিয়ে নিতে চাইলে আইনগত ভাবে ফিরিয়ে নেয়াসহ ব্যাংকের সুদসহ লোনের টাকা দিতে হবে। অথচ বাবু-মতিউর গং অনৈতিকভাবে পুলিশ ভাড়া করে মার্কেটে তালা লাগিয়ে দখলের চেষ্টা করছে। এরআগেও তাকে ডিবি পুলিশ অফিসে ডেকে হেনস্থা ও নানাভাবে চাপ প্রয়োগের চেষ্টা করেছেন শরিফুল ইসলাম। এঘটনায় তিনি আইনের আশ্রয় নেবেন বলে জানান।

শেয়ার