পাটকল শ্রমিকদের দাবি মেটেনি, ধর্মঘট চলবে

oborodh
সমাজের কথা ডেস্ক॥ সব দাবি পূরণ না করায় খুলনা ও যশোরের আন্দোলনরত পাটকল শ্রমিকরা ধর্মঘট অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে।
তিন দিনের সড়ক ও রেলপথ অবরোধ কর্মসূচি শেষে দাবি মেনে নেওয়ার জন্য আরও তিন দিন সময় বেঁধে দেয় বাংলাদেশ রাষ্ট্রায়ত্ত জুট মিল সিবিএ-ননসিবিএ ঐক্য পরিষদ।

বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসকের সঙ্গে বৈঠক শেষে তারা এ ঘোষণা দেয়।

ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক মো. সোহরাব হোসেন বলেন, দুপুরে জেলা প্রশাসক ও পাটকল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকে শ্রমিকদের দুই সপ্তাহের মজুরি দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে কাজে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়।

“কিন্তু শ্রমিক প্রতিনিধিরা তা না মেনে ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়ে দেন।

“এছাড়া আগামী রোববারের মধ্যে ২০ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা ও সব মজুরি পরিশোধ করা না হলে ধর্মঘটের পাশাপাশি লাগাতার সড়ক ও রেলপথ অবরোধ শুরু হবে বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়।”

পাটখাতে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ, বকেয়া মজুরি পরিশোধ, ২০ ভাগ মহার্ঘ ভাতা প্রদানসহ পাঁচ দফা দাবিতে খুলনা ও যশোরের রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল শ্রমিকরা গত সোমবার থেকে কাজ বন্ধ রেখেছে।

পাশাপাশি মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সড়ক ও রেলপথ অবরোধ করে।

বৃহস্পতিবার অবরোধ চলাকালেই দুপুরে শ্রমিক নেতারা প্রশাসন ও পাটকল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকে বসেন।

ঐক্য পরিষদ নেতা সোহরাব হোসেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বিভিন্ন পাটকলে শ্রমিকদের ৭ থেকে ৯ সপ্তাহের মজুরি বকেয়া রয়েছে। এছাড়া ২০ শতাংশ মহার্ঘ ভাতাও পরিশোধ করা হচ্ছে না। তাই শ্রমিকরা আন্দোলনে নামে।

সকাল থেকে খালিশপুরের প্লাটিনাম জুবিলী জুট মিল, ক্রিসেন্ট জুট মিল, দিঘলিয়ার স্টার, আটরা শিল্প এলাকায় আলীম, ইস্টার্ন, নওয়াপাড়া শিল্প এলাকার জেজেআই ও কার্পেটিং জুট মিলের হাজার হাজার শ্রমিক অবরোধে নামে।

শেয়ার