অনলাইনে ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধাচারী জগন্নাথের ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

onli
সমাজের কথা ডেস্ক॥ পুরান ঢাকায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রকে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করা হয়েছে, যিনি ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে অনলাইনে লেখালেখিতে সক্রিয় ছিলেন।
বুধবার রাত ৯টার দিকে সূত্রাপুরের একরামপুরে নিহত নাজিমুদ্দিন সামাদ (২৭) বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সান্ধ্যকালীন বিভাগের ছাত্র ছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।
নাজিমের বাড়ি সিলেটে। ফেইসবুক পাতায় তিনি নিজেকে সিলেট জেলা বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব পরিষদের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে উল্লেখ করেন।
গণজাগরণ আন্দোলনের সিলেটের সংগঠক হিসেবেও তিনি কাজ করেছিলেন বলে বন্ধুরা জানিয়েছেন।
ডিএমপির ওয়ারি অঞ্চলের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার নুরুল আমীন বলেন, রাত ৯টার দিকে সূত্রাপুরের একরামপুর মোড়ে দুর্বৃত্তরা নাজিমকে কুপিয়ে ও গুলি করে পালিয়ে যায়। তাকে মিটফোর্ড হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
ফেইসবুক বন্ধুরা লিখেছেন, হেঁটে যাওয়ার পথে আক্রান্ত হন নাজিম। হামলাকারীরা ‘আল্লাহু আকবার’ ধ্বনি দিয়ে আক্রমণ করেছিল।
এথেকে সন্দেহ করা হচ্ছে, ব্লগার ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট হত্যাকাণ্ডের মতো উগ্রবাদীরাই নাজিমকে হত্যার পেছনে জড়িত। তবে পুলিশ এবিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেননি।
নাজিমের ফেইসবুক পাতায় লেখায় উগ্রবাদীদের সমালোচনা দেখা যায়। তিনি নিজের পরিচয়ে লিখেছেন, নির্দিষ্ট কোনো ধর্মের অনুসারী নন তিনি।
নাজিম জগন্নাথে আইন বিভাগে এলএলএম কোর্সে ভর্তির আগে আগে সিলেটের বেসরকারি লিডিং ইউনির্ভাসিটি থেকে স্নাতক ডিগ্রি নেন।

শেয়ার