যশোরে এক নারীকে পাচার মামলায় চার্জশিট, অভিযুক্ত ৫

mamla
নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর শহরের শংকরপুর এলাকার এক নারীকে ভারতে পাচার মামলায় চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই নাসির উদ্দিন ৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন।
অভিযুক্তরা হলেন, শংকরপুর জমাদ্দারপাড়ার আলমগীর হোসেনের স্ত্রী মেহেরজান বেগম, আইয়ুব আলীর ছেলে আলমগীর হোসেন, মোহাম্মাদ আলী কুট্টির স্ত্রী শুকুরজান বেগম, বাগেরহাট জেলার মোড়লগঞ্জ উজেলার গাবতলা গ্রামের হাফিজুর রহমান ও তার মা পারুল বেগম।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, আসামিরা মানব পাচারকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য। যশোর শহরের শংকরপুর এলাকার এক নারীকে ঢাকায় বেশি বেতনে চাকরির প্রলোভন দেয়ায়। তাদের প্রলোভনে রাজি হলে ওই নারীকে ২০১৪ সালের ৫ আগস্ট ঢাকায় নেয়ার কথা বলে বেনাপোল সিমান্ত দিয়ে ভারতে নিয়ে যায়। তারা ওই নারীকে ভারতীয় এক দালালের কাছে বিক্রি হয়ে দেশে ফিরে আসে। ভারতীয় দালাল তাকে বেংলট নামক স্থানে একটি আবাসিক হোটেলে আটক রেখে দেহ ব্যবসা করায়। ২০১৫ সালের ২০ জুন ওই নারী পালিয়ে দেশে ফিরে আসে। এরপর তিনি বাদী হয়ে ২৮ জুন ৫ জনের বিরুদ্ধে মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ওই ৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয়া হয়েছে। চার্জশিটে অভিযুক্ত ৫ জনকেই পলাতক দেখানো হয়েছে।

শেয়ার