আচরণ বিধি লংঘনের ‘মিথ্যা’ মামলায় নবনির্বাচিত দুই চেয়ারম্যানের জামিন

mamlah‡kv‡i hye H‡K¨i Av‡jvPbv I msea©bv Abyôv‡b e³viv
†eKvi mgm¨v mgvav‡bi
cÖavb `vwqZ¡ miKv‡ii///2
wbR¯^ cÖwZ‡e`K\ RvZxq hye HK¨ Av‡jvPbv I hye msea©bv Abyôv‡b e³viv e‡j‡Qb, †eKvi mgm¨v mgvav‡bi cÖavb `vwqZ¡ miKv‡ii| hye mgvR‡K e¨envi bv K‡i Kg©ms¯’v‡bi my‡hvM †`qv DwPZ| eZ©gvb miKv‡ii wbe©vPbx Bk‡Znv‡i †eKviZ¡ `~i K‡i Kg©ms¯’v‡bi my‡hv‡Mi K_v wQj| wKš‘ miKvi welqwU fz‡j wM‡q wewfbœ cÖKí wb‡q e¨¯Í| †mvgevi †ejv mv‡o 12Uvq RvZxq hye HK¨ h‡kv‡ii D‡`¨v‡M †eKvi mgm¨v mgvav‡b Dc‡Rjv wkívÂj PvBÕ kxl©K Av‡jvPbv I hye msea©bv Abyôv‡b e³viv Gme K_v e‡jb|
RvZxq hye HK¨ h‡kv‡ii mfvcwZ Avey gyQvi mfvcwZ‡Z¡ e³viv e‡jb, †`‡k hye †eKvi‡Z¡i cvkvcvwk wkw¶Z †eKviZ¡ `ªæZ †e‡o Pj‡Q| eZ©gv‡b evsjv‡`‡ki 47 kZvsk ¯œvZK wWwMÖavixB †eKvi| `w¶Y Gwkqvq Gi †P‡q †ewk D”Pwkw¶Z †eKvi Av‡Qb †Kej AvdMvwb¯Ív‡b 65 kZvsk| fvi‡Z Gi nvi 33 kZvsk, †bcv‡j 20 kZvs‡ki †ewk, cvwK¯Ív‡b 28 kZvsk Ges kÖxj¼vq 7 `kwgK 8 kZvsk|
Abyôv‡b cÖavb AwZw_i e³…Zv K‡ib, RvZxq hye HK¨i †K›`ªxq mfvcwZ GmGg mvgQzj Avjg wb•b| we‡kl AwZw_ wQ‡jb †RGmwW h‡kv‡ii mnmfvcwZ Avãyj gvbœvb, mvaviY m¤úv`K ˆmq` weíe AvRv`, bvix †bÎw Rwj Av³vi, ü`‡q cZvKv 2 gvP©Õ 71-Gi †K›`ªxq mvsMVwbK m¤úv`K kwidzj Bmjvg kwid cÖgyL|
Dcw¯’Z wQ‡jb, †RGmwW h‡kv‡ii hyM¥ m¤úv`K Rwniæj nvwee D¾¡j, †Rjv KwgwUi †bZv †gv¯ÍvwdRyi ingvb, Rvnv½xi †nv‡mb cÖgyL| c‡i h‡kvi hye H‡K¨i D‡`¨v‡M †K›`ªxq I †Rjv †bZv‡`i msewa©Z Kiv nq|

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আচরণ বিধি লংঘনের অভিযোগে পুলিশের দায়ের করা মিথ্যা মামলায় আদালত থেকে জামিন নিয়েছেন নব নির্বাচিত দুই ইউপি চেয়ারম্যান। সোমবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের আত্মসমর্পণের পর বিচারক মো. শাজাহান আলী তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।
জামিনপ্রাপ্তরা হলেন, আরবপুর ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহারুল ইসলাম এবং দেয়াড়া ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি আনিছুর রহমান আনিছ।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, গত ৩১ মার্চ দ্বিতীয় দফায় যশোর সদর উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদারের নেতৃত্বে প্রতিটি ইউনিয়নে দলীয় প্রার্থীদের পক্ষে গণসংযোগের মাধ্যমে ভোট প্রার্থনা করেন। এদিকে, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান প্রতিটি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের কাছ থেকে ১৫ লাখ টাকা করে ঘুষ দাবি করেন। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদার পুলিশ সুপারকে ঘুষের ওই টাকা দিতে দ্বিমত পোষণ করায় আচরণবিধি লংঘনের মিথ্যা তথ্য দিয়ে নির্বাচন কমিশনকে বিভ্রান্ত করেন। এ মামলায় শাহীন চাকলাদারসহ আরবপুর ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম ও দেয়াড়া ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আনিছুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা করে পুলিশ। ওই মামলায় রোববার শাহীন চাকলাদার এবং সোমবার শাহারুল ইসলাম ও আনিছুর রহমান আদালতে হাজির হয়ে জামিন নেন।

শেয়ার