বিদেশ থেকে বাড়ি আসছিলেন স্বামী॥ ঢাকায় রিসিভ করতে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় নিহত মনিরামপুরের গৃহবধূ

road accedent
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বিদেশ থাকা স্বামী হাফিজুর রহমানকে দেখার জন্য ৮ বছর ধরে দিন গুণছিলেন যশোরের মনিরামপুরের মথুরাপুরের গৃহবধূ শামসুন্নাহার সুমি (৩২)। সেই দিন নিকটেও চলে আসে। ৭ এপ্রিল সিঙ্গাপুর থেকে তার স্বামী দেশে আসছেন। বিমানবন্দরে তাকে রিসিভ করে বাড়িতে আসবেন। কিন্তু এমন সব স্বপ্ন ও পরিকল্পনা তছনছ হয়ে গেছে। স্বামীকে আনতে ঢাকায় যাওয়ার পথে তিনি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন তার ৮ বছরের শিশু কন্যা কানিশা। রোববার সকালে যশোর শহরের খাজুরা বাসস্ট্যান্ডে এ ঘটনা ঘটে। আহত কানিশা যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন।
নিহতের মামা গাজী মুকিতুল হক ও শ্বশুর ইসহক আলী হাসপাতালে সাংবাদিকদের জানান, হাফিজুর সিঙ্গাপুর থাকেন। প্রায় ৮ বছর পরে ৭ এপ্রিল সে দেশে আসছে। তাকে বিমানবন্দরে রিসিভ করতে হাফিজুরের স্ত্রী শামসুন্নাহার সুমি ও মেয়ে কানিশা আগেভাগে ঢাকার পথে রওনা দেয়। তারা ঢাকায় পৌছে এক আত্মীয়ের বাসায় থাকতে চেয়েছিলো। এজন্য রোববার সকালে মনিরামপুর থেকে ভাড়ার মোটরসাইকেলে যশোর শহরের খাজুরা বাসস্ট্যান্ডের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। সেখান থেকে হানিফ পরিবহনযোগে যেতে চেয়েছিলো। কিন্তু খাজুরা বাসস্ট্যান্ডের ট্রাফিক মোড় ঘুরতেই মোটরসাইকেলের পেছন থেকে পড়ে যায় মা ও মেয়ে। মাথায় প্রচ- আঘাত পেয়ে মারা যায় মা শামসুন্নাহার সুমি ও আহত হয় মেয়ে কানিশা।
মা ও মেয়ের হতাহতের ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইলিয়াস আলী

শেয়ার