অটিস্টিকদের বিকাশের সুযোগ দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

file
সমাজের কথা ডেস্ক॥ মেধা বিকাশের সুযোগ পেয়ে অটিজমে আক্রান্তরাও যেন সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখতে পারে, সেজন্য সবাইকে আরও উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
শনিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে নবম ‘বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান তিনি।
শেখ হাসিনা বলেন, “এদের মধ্যে সুপ্ত প্রতিভা আছে। সেটাই বিকশিত করে দেওয়ার সুযোগ করে দিতে হবে, যেন মেধা বিকাশের মাধ্যমে তারাও সমাজকে কিছু উপহার দিতে পারে।”
অটিজমে আক্রান্ত হিসেবে বিজ্ঞানী আলবার্ট আইনস্টাইন, চার্লস ডারউইন, আইজ্যাক নিউটনের নাম উল্লেখ করে তিনি বলেন, অটিস্টিক শিশুরা যেন অবহেলায় হারিয়ে না যায় সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে।
“তারাও মানুষ।তারাও আমাদের সমাজের অংশ, তাদের জন্যও আমাদের কাজ করতে হবে। একটা দেশকে উন্নত করতে হলে সকলকে নিয়ে করতে হবে, কাউকে অবহেলা করে না।”
শেখ হাসিনা বলেন, তার সরকারের নেওয়া পদক্ষেপের কারণে দেশে অটিজম সচেতনতা বেড়েছে।
“আমাদের দেশে আগে অটিজম নিয়ে কোনো সচেতনতাই ছিল না। কোনো সন্তান অটিস্টিক থাকলে বাবা-মা সেটা লুকাতেন। সমাজের কাছে বলতে পারতেন না। মাত্র কিছু দিন থেকে এ সচেতনতার ব্যাপারটা সামনে চলে এসেছে।”
প্রতিবন্ধী শিশুদের মূলধারায় আনতে সরকার ‘কাজ করে যাচ্ছে’ মন্তব্য করে বঙ্গবন্ধুকন্যা তাদের জন্য ‘সুন্দর পরিবেশ’ সৃষ্টির প্রতিশ্রুতি দেন।
অটিজম আক্রান্তদের স্বার্থ ও অধিকার সুরক্ষায় নিউরো-ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধী সুরক্ষা ট্রাস্টি বোর্ড গঠন ও সেখানে তিন হাজার একশ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়ার কথাও বলেন তিনি।
প্রতিবন্ধীদের প্রতিপালনে রাষ্ট্রের কর্তব্যের কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, “সেটা আমরা করব।”
সরকার পরিবর্তন হলেও সেবামূলক এই কার্যক্রম যেন অব্যাহত থাকে সেজন্য ট্রাস্টি বোর্ড গঠন করা হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন শেখ হাসিনা।
“আমার সব সময় মনে হয়, আজকে বাবা-মা যতদিন আছে ততদিন হয়ত ওদের দেখবে। কিন্তু তারপরে কে দেখবে? এমন কিছু করে দিয়ে যেতে চাই, যেন এরা সমাজে আর অবহেলিত না থাকে।”
বেসরকারি খাতের উন্নয়নে সরকার সহযোগিতা দিচ্ছে উল্লেখ করে ‘প্রতিবন্ধীদের সহায়তা’য় এ খাতসংশ্লিষ্টদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান সরকারপ্রধান।
প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে ঢাকার মিরপুরে জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন ক্যাম্পাসে অটিজম রিসোর্স সেন্টার ও একটি অবৈতনিক বিদ্যালয় স্থাপন করে অটিজম বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন শিশু ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বিনামূল্যে বিভিন্ন সেবা দেওয়া হচ্ছে বলে জানান।
প্রতিবন্ধী শিশুদের মূলধারায় আনতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে একাডেমি ফর অটিজম অ্যান্ড নিউরো ডেভেলপমেন্টাল ডিজঅর্ডার স্থাপনের জন্য দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানান শেখ হাসিনা।
“এখানে অটিস্টিকসহ প্রতিবন্ধী মানুষদের এক সাথে শিক্ষার ব্যবস্থা করা হবে।”
প্রধানমন্ত্রী তার সরকারের আমলে প্রতিবন্ধীদের জন্য নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত অটিস্টিক ও প্রতিবন্ধী শিশুদের সঙ্গে কিছু সময় কাটান। এরপর তিনি প্রতিবন্ধীদের পরিবেশিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দেখেন।

শেয়ার