শর্ত সাপেক্ষে তাসকিনকে চেয়েছিলেন মাশরাফি!

masra
সমাজের কথা ডেস্ক॥ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের আগেই তাসকিন আহমেদ ও আরাফাত সানির নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা আসে আইসিসির সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে। সানির ব্যাপারটা একরকম মেনেই নিয়েছিল বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা তাসকিনের নিষেধাজ্ঞা মেনে নেয়া যায়নি।

পরীক্ষাগারে তাসকিনের অ্যাকশনের ব্যাপারে অভিযোগ কেবল বাউন্সারে। নরমাল ডেলিভারিতে কোনো সমস্যা ধরা পড়েনি। তাইতো বিশ্বকাপে বাউন্সার দেবে না তাসকিন-এমন শর্তে তাকে খেলাতে চেয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

রোববার (২৭ মার্চ) কলকাতা থেকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানন্দরে পৌঁছে মাশরাফি এ ব্যাপারে বলেন, আমরা ছাড়াও বাকি দেশের যারা আছেন, তারা কিন্তু একমত ছিলেন তাসকিনের অ্যাকশনে কোনো সমস্যা নেই। তার নরমাল ডেলিভারিতে কোনো সমস্যা ধরা পড়েনি। শুধু বাউন্সারে তিনটা বলে সমস্যা দেখা দেয়। আমরা বিসিবিকে জানাই, কোনোভাবে আমরা তাসকিনকে পেতে পারি কিনা? যেহেতু বাউন্সারে সমস্যা এসেছে, বাউন্সার ছাড়া তাকে খেলানো যেতে পারে কিনা? আসলে অনেক আলোচনা আমাদের মধ্যে হয়েছে। সব শেষে আমরা তাকে পাইনি।’

তাসকিনকে ছাড়া বোলিংয়ের পরিকল্পনায় সমস্যা হয়েছে বলেও জানান মাশরাফি, ‘পরিকল্পনা করা খুব কঠিন ছিল, সব কিছু ম্যানেজ করা..। আপনি দেখুন, তাসকিন শেষ ৮টা ম্যাচ খেলেছে বিশ্বের সবচেয়ে কম ইকোনমি রেট নিয়ে। কেবল বাংলাদেশ না, পুরো বিশ্বের মধ্যে তার ইকোনমি রেট কম ছিল। তাই তাসকিনকে হারানো সত্যিই খুব কঠিন ছিল আমাদের জন্য।’

আরাফাত সানি প্রসঙ্গে মাশরাফি বলেন, সানির ব্যাপারটা আমরা মেনে নিয়েছি। সানি নিজেও মেনে নিয়েছে। ওর ত্রুটি যে লেভেলে ছিল তাতে সানি নিজেও জানে, ওর অ্যাকশন শুধরে আসতে হবে। তাসকিনের যে বিষয়টা ছিল তা আমাদের জন্য অবশ্যই শকিং।

শেয়ার