অবশেষে কমছে জ্বালানি তেলের দাম!

Oil
সমাজের কথা ডেস্ক॥ এক মাসের মধ্যে জ্বালানি তেলের দাম কমানো হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। সোমবার (২৮ মার্চ) তিনি বলেন, এক মাসের মধ্যে জ্বালানি তেলের দাম সমন্বয় করা হবে।
সব ধরনের তেলের দাম কমলেও বিশেষ করে ফার্নেস অয়েলের (বিদ্যুৎ উৎপাদনে ও শিল্প কারখানায় ব্যবহৃত) দাম পনের টাকার মতো কমানোর বিষয়ে চিন্তা ভাবনা চলছে বলে জানা গেছে মন্ত্রণালয় সূত্রে।

এ ব্যাপারে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সব ধরনের জ্বালানি তেলের দাম পুনর্র্নিধারণের বিষয়ে চিন্তা ভাবনা চলছে। বিষয়টি চূড়ান্ত হতে সর্বোচ্চ মাস খানেক সময় লাগতে পারে। তারপরেই পরিপত্র জারি করা হবে।
উল্লেখ্য, বছরখানেক আগে আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল (ক্রড অয়েল) প্রতি ব্যারেলের দাম উঠেছিলো ১২২ ডলার। সেই বৃদ্ধির অজুহাতে ২০১৩ সালের ৪ জানুয়ারি জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয় বাংলাদেশে। তখন পেট্রোল-অকটেন লিটার প্রতি ৫ টাকা ও ডিজেল কেরোসিনের দাম ৭ টাকা করে বাড়ানো হয়েছিলো।
বর্তমানে ক্রুড অয়েলের দাম কমতে কমতে ৪০ ডলারে নেমে এসেছে। এ অবস্থায় বিভিন্ন মহল থেকে তেলের দাম কমানোর আহ্বান জানানো হয় সরকারের প্রতি। কিন্তু তারপরও তেলের দাম না কমানোর কারণ হিসেবে বলা হয়েছিলো, বিপিসি আগে লোকসান যে দিয়েছে সেগুলো পুষিয়ে নেয়া হবে। তবে শেষ পর্যন্ত তেলের দাম কমানোরই সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে সরকার।

শেয়ার