সাতক্ষীরায় শিক্ষিকা স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ

shasrodhe hottahott
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি॥ সাতক্ষীরায় বেতনের টাকা স্বামীকে না দেয়ায় স্কুল শিক্ষিকা স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নিহতের নাম নাফিজা খাতুন ময়না (২৫)। তিনি আলীপুর গ্রামের মোখলেছুর রহমানের স্ত্রী। দাম্পত্য জীবনে তিনি দু’জমজ কন্যা সন্তানের জননী। বৃহস্পতিবার ভোররাতে সদর উপজেলার আলীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছে।
নিহতের চাচা শহিদুল ইসলাম জানান, তার ভাইঝি নাফিজা খাতুন ময়না স্থানীয় ব্র্যাক পরিচালিত স্কুলে শিক্ষকতা করতেন। বুধবার তিনি তার বেতনের জমানো ৫০ হাজার টাকা দু’মেয়ের নামে ব্যাংকে জমা রাখেন। এই টাকা তার স্বামী মোখলেছুর রহমানকে না দিয়ে ব্যাংকে জমা রাখায় বাড়িতে ফিরলে তার ওপর শুরু হয় স্বামীর নির্যাতন। নির্যাতনের ফলে গৃহবধূ পানি খেতে চাইলে তাকে পানি পান করতেও দেয়া হয়নি বলে নিহতের চাচা এবং প্রতিবেশীদের অভিযোগ। একপর্যায়ে গভীর রাতে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ঘরের সিলিং ফ্যানে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা করেছে মর্মে প্রচার দেয় তার স্বামী মোখলেছ। পরে খবর পেয়ে সদর থানার এসআই নজরুল ইসলাম নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে।
সদর থানার ভরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক শেখ জানান, নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে। তবে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ আছে বলে তিনি জানান। এ ঘটনায় নিহতের চাচা শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে একটি মামলা দাযেরের প্রস্তুতি চলছে।

শেয়ার