ইউপি নির্বাচনে আ. লীগ পেল ৩৮৭ চেয়ারম্যান, বিএনপি ২৬

upojila nirbachonup nirbachon

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের প্রথম ধাপের ৫০২টির ফল জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। যাতে দুই তৃতীয়াংশ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন। বুধবার বিকেল পর্যন্ত যে ৫০২টি ইউপির ফল ঘোষণা হয়েছে তার ৩৮৭টিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা চেয়ারম্যান হয়েছেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৮ জন চেয়ারম্যান হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে।
আর বিএনপি পেয়েছে ২৬টি আসন। জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা জয় পেয়েছেন তিনটিতে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের শরিক দলগুলোর মধ্যে ওয়ার্কার্স পার্টির দু’জন এবং জাসদের একজন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া জাতীয় পার্টি-জেপি ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর একজন করে চেয়ারম্যান প্রার্থী জয়ী হয়েছেন।
প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে আয়োজিত এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৭৩ দশমিক ৮২ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে নির্বাচন কমিশনের সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম জানিয়েছেন।
ইউপি ভোটের প্রথম ধাপে মঙ্গলবার সারাদেশে ৭১২টি ইউনিয়নে ভোট হয়। এর মধ্যে ৫৪ ইউপিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় সেগুলোতে শুধু সাধারণ ও সংরক্ষিত সদস্য পদে ভোট হয়। নির্বাচনে গোলযোগ-অনিয়মের কারণে ৬৫ কেন্দ্রে ভোট স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন।
ফলাফল ঘোষিত ইউপিগুলোতে ভোটের হিসাবে আওয়ামী লীগ প্রায় ৩৩ শতাংশ এবং বিএনপি প্রায় ১০ শতাশ ভোট পেয়েছে বলে ইসি সচিব জানিয়েছেন।
এর আগে প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে স্থানীয় নির্বাচন পৌরসভায় ভোট পড়ে ৭৪ শতাংশ। সেখানে আওয়ামী লীগ ৫২ শতাংশ এবং বিএনপি ২৮ শতাংশ ভোট পায়।
ইসির নির্বাচন ব্যবস্থাপনা ও সমন্বয় শাখার কর্মকর্তারা জানান, ৫০২ ইউপিতে মোট ৮১ লাখ ২৯ হাজার ৯ জন ভোটারের মধ্যে ৬০ লাখ ৮২৬ জন ভোট দিয়েছেন। বাতিল হয়েছে ১ লাখ ৬ হাজার ৪৬৫ ভোট।
এসব ইউপিতে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে ৩৪ লাখের বেশি ভোট পড়েছে। বিএনপির ধানের শীষে পড়েছে ১০ লাখের বেশি। এসব ইউপিতে ৬৮ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী হলেও তাদের পক্ষে রায় দিয়েছেন ১৪ লাখ ৪৪ হাজার ৭৮১ জন ভোটার, যা মোট ভোটারের ১৩ দশমিক ৮২ শতাংশ। এতে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকে পড়েছে মাত্র দশমিক ৬২ শতাংশ ভোট।

শেয়ার