আটোরিকশা ফেরত পাওয়ার চেষ্টা ॥ যশোরে শিশুকন্যাসহ চালককে চারদিন ধরে ঘরে তালাবদ্ধ, মহাজন আটক

atok
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরে আটকে রাখার ৪দিন পর শিশুকন্যাসহ তার পিতা আলেক আলী (৪৮) নামে এক ব্যক্তিকে তালাবদ্ধ একটি ঘর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বেলা দুটোর দিকে সদর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গা মান্দারতলা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। পিতা ও মেয়েকে আটকে রাখার অভিযোগে এ সময় মিকাইল হোসেন নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। মিকাইল হোসেন ওই এলাকার জনৈক ওয়াজেদ আলীর বাড়ির ভাড়াটিয়া।
উদ্ধার হওয়া আলেক আলী সদর উপজেলার কাশিমপুর ইউনিয়নের খোজারহাট গ্রামের মৃত আবু তালেবের ছেলে। বর্তমানে তিনি বালিয়াডাঙ্গা মান্দারতলার আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হালিম বিশ্বাসের বাড়িতে ভাড়া থাকেন। পেশায় তিনি একজন রিকশাচালক।
আলেক আলী জানান, তার ছেলে সাইদুল শহরের টালিখোলা এলাকার এক ব্যক্তির ইজিবাইক চালাত। ১৩দিন হলো তার ছেলে ইজিবাইকসহ নিখোঁজ রয়েছে। এ ঘটনায় তারা চরম উদ্বিগ্ন। এরপরও ওই ব্যক্তিটি (ছেলের মহাজন) তার চালানো অটোরিকশা কেড়ে নেয়।
আলেক আলী আরও জানান, তিনি যে অটোরিকশা চালাতেন সেটা বালিয়াডাঙ্গা মান্দারতলার ওয়াজদ আলীর বাড়ির ভাড়াটিয়া মিকাইল হোসেনের। মালিক মিকাইল রিকশা ফেরত পেতে তৃতীয় শ্রেণি পড়য়া মেয়ে তানিয়াসহ তাকে গত শনিবার সন্ধ্যা থেকে আটকে রাখেন। অটোরিকশা এনে না দিলে তাদের ছেড়ে দেয়া হবেনা বলে হুমকি দেন। মেয়েসহ তাদের দুজনকে একটি ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখা হয়। এরই মধ্যে তার স্ত্রী মিকাইল হোসেনকে ১০ হাজার টাকা দিয়েছেন। কিন্তু তারপরও তাদের ছেড়ে দেয়া হয়নি। ফলে তার স্ত্রী কোতোয়ালি মডেল থানায় অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়ে মঙ্গলবার দুপুর দুটোর দিকে পুলিশ তাদের তালাবব্ধ ঘর থেকে উদ্ধার করেন।
এদিকে, কোতয়ালি মডেল থানার এএসআই কামাল হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়ে তিনি তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে একটি তালাবদ্ধ ঘর থেকে শিশুকন্যাসহ আলেক আলীকে উদ্ধার করেছেন। আর তাদের ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখার অপরাধে মিকাইল হোসেনকে আটক করা হয়েছে।

শেয়ার