ইংল্যান্ডের কাছেও হারল বাংলাদেশের মেয়েরা

girl spo

সমাজের কথা ডেস্ক॥ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের সর্বোচ্চ ইনিংস গড়লেও টানা দ্বিতীয় হার এড়াতে পারেনি বাংলাদেশ। ইংল্যান্ডের কাছে জাহানারা আলমের দল হেরেছে ৩৬ রানে।
বেঙ্গালুরুর এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৫৩ রান তোলে ইংল্যান্ডের মেয়েরা। জবাবে ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১১৭ রান তুলতে পারে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের মেয়েদের এটাই সর্বোচ্চ রানের ইনিংস।
এর আগে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি ছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। ২০১৪ সালের এপ্রিলে সিলেটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩ রানে জেতা ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ৯ উইকেট ১১৫ রান করেছিল বাংলাদেশ।
বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে প্রথম ওভারেই উইকেট হারায় বাংলাদেশের মেয়েরা। ৬ বল খেলে কোনো রান না করে ফিরে যান শারমিন সুপ্তা।
শুরুতে বাংলাদেশের রান তোলার গতি ছিল বেশ ধীর। ষষ্ঠ ওভারের প্রথম বলে আয়েশা রহমান যখন আউট হয়ে ফেরেন, বাংলাদেশের রান তখন ১৪।
তৃতীয় উইকেট জুটিতে ফারজানা হক ও রুমানা আহমেদ প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিলেন। কিন্তু ৮ রানের মধ্যে দুজনই আউট হয়ে গেলে আবার বিপদে পড়ে বাংলাদেশ।
২৫ বলে ১৯ রান করে আউট হওয়ার আগে রুমানার সঙ্গে মিলে ৩.৫ ওভারে ২৪ রান তোলেন ফারজানা। রুমানা আউট হন ১৯ বলে ১৯ রান করে।
বাংলাদেশের ইনিংসে সবচেয়ে বড় জুটিটি আসে পঞ্চম উইকেটে; নিগার সুলতানা জ্যোতি আর সালমা খাতুন মিলে ৮.১ ওভারে তোলেন ৬৪ রান।
দলীয় সর্বোচ্চ ৩৫ রানের ইনিংসটি আসে নিগার সুলতানার ব্যাট থেকে। ২৮ বলের ইনিংসটিতে ৪টি চার ও একটি ছয় মারেন তিনি। ৪টি চারে ৩০ বলে ৩২ রান করে অপরাজিত ছিলেন সালমা।
২৭ রান দিয়ে ইংল্যান্ডের অ্যানিয়া শ্রুবসোল ২ উইকেট নেন।

‘বি’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শুরুটা ভালো করে ইংল্যান্ড। উদ্বোধনী জুটিতে ৪.১ ওভারে ৩৪ রান তোলে তারা।
মাঝে ১ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়েছিল ইংল্যান্ডের মেয়েরা। তবে অধিনায়ক শার্লট এডওয়ার্ডসের ৬০ রানের ইনিংসে শেষ পর্যন্ত দেড়শ পেরোয় তারা। ৫১ বলের ইনিংসটি ৭টি চারে সাজান শার্লট।
৩২ রানে ৩ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের সফলতম বোলার অধিনায়ক জাহানারা। একটি করে উইকেট নেন সালমা খাতুন, ফাহিমা খাতুন, খাদিজা তুল কুবরা ও রুমানা আহমেদ।
‘বি’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে ৭২ রানে হেরেছিল বাংলাদেশ।

শেয়ার