চাকরি ছেড়ে শিল্পী হতে চান ৮০ ভাগ ব্রিটিশ

hosto shilpo
সমাজের কথা ডেস্ক॥ যুক্তরাজ্যের কর্মজীবী মানুষের উপর চালানো একটি নতুন গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে এক বিস্ময়কর এক তথ্য। গবেষণা মতে, দেশটির প্রতি ১০ জন মানুষের মধ্যে আট জনই তাদের অফিসের কাজকর্ম ছেড়ে দিয়ে কোনো না কোনো শিল্পকর্ম শিখতে চায়।
গবেষণাটি করেছে দ্য ব্যালভেইন হুইস্কি। দেখা যায়, টাকার কথা বাদ দিলে প্রায় ৭৭ শতাংশ মানুষ এই মুহূর্তে তাদের চাকরি ছেড়ে দিয়ে শিখতে চায় কোনো নিপুণ শিল্পকর্ম।
কিন্তু একটি শিল্পকর্ম তৈরিতে কী পরিমাণ সময় লাগে- এমন প্রশ্ন তাদেরকে করা হলে তারা সময় কমিয়ে বলেছে দুই হাজার ঘণ্টা। বাস্তবে একটি শিল্পকর্ম তৈরিতে সময় লাগে ১০ হাজার ঘণ্টা।
কী ধরনের শিল্পকর্ম তারা শিখতে চান- এমন প্রশ্নের জবাবে দেখা যায়, দুই হাজার শিল্পের তালিকায় প্রথম দিকে রয়েছে আলোকচিত্র, ইনটেরিয়র ডিজাইন এবং মৃৎশিল্প।
যখন তাদেরকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল কী কারণে তারা শিল্পকে বেছে নিচ্ছেন- জবাবে প্রতি ১০ জনের ছয় জন দাবি করেছে, শিল্পকর্ম তাদের জন্য ওষুধের মত কাজ করে, বিশেষ করে চাকরি জীবনের চাপ সামলানোর জন্য।
গবেষণায় অংশগ্রহণকারী মানুষদের বেছে নেয়া অন্যান্য শিল্পের মধ্যে রয়েছে রাঁধুনি, গহনা নকশাকারী এবং মালী ইত্যাদি। আধুনিক যান্ত্রিক মানুষের মধ্যে শিল্পকে পুনরুজ্জীবিত করার একটা প্রক্রিয়া পূর্ণ উদ্যমে শুরু হয়ে গেছে ইতিমধ্যে।
অংশগ্রহণকারীদের প্রায় ৩১ শতাংশই কোনো না কোনো শিল্পকর্মের সাথে জড়িত রয়েছেন গত পাঁচ বছর যাবত। এর মধ্যে আলোকচিত্র ১২ শতাংশ, রাঁধুনি সাত শতাংশ, সঙ্গীত ছয় শতাংশ, নকশা চার শতাংশ এবং বাগান করা তিন শতাংশ।
যে সমস্ত মানুষ চাকরি ছেড়ে দিতে চান তার মধ্যে নিরাপত্তাকর্মীই সবচেয়ে বেশি, প্রায় ৯৫ শতাংশ। এরপরেই রয়েছে আইটি পরামর্শদাতা, প্রায় ৯১ শতাংশ। শেষে রয়েছে হিসাব রক্ষকরা, প্রায় ৮৭ শতাংশ। উল্লেখ্য, গবেষণাটি করা হয়েছিল ব্যালভেইন হুইস্কির ‘দ্যা ক্র্যাফটসম্যান ডিনার’ নামের ছয় পর্বের স্বল্প দৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের সুবাদে।

শেয়ার