আইভরি কোস্টে আল কায়েদা জঙ্গিদের হামলায় নিহত ১৬

ivery
সমাজের কথা ডেস্ক॥ আল কায়েদার উত্তর আফ্রিকা শাখার বন্দুকধারীদের গুলিতে আইভরি কোস্টের একটি অবকাশযাপন কেন্দ্রে ১৬ জন নিহত হয়েছেন।
রোববারের এ ঘটনায় নিহতদের মধ্যে চারজন ইউরোপীয় নাগরিক ও দুইজন আইভরি সেনা রয়েছেন। এ হামলার মাধ্যমে পশ্চিম আফ্রিকা অঞ্চলে আল কায়েদার ক্রমবর্ধমান সক্রিয়তার প্রকাশ ঘটেছে বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।
দেশটির বাণিজ্যিক রাজধানী আবিদজান থেকে ৪০ কিলোমিটার পূর্বের শহর গ্রান্ড বাসসামে হামলাটি চালানো হয়। শহরটি একটি জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র।

ছয় বন্দুকধারী সমুদ্রমুখি শহরটির সৈকতের পাশ ঘেঁষে দাঁড়িয়ে থাকা হোটেলগুলোতে তান্ডব চালিয়ে ১৬ জনকে হত্যা করে। পরে আইভরি কোস্টের নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গোলাগুলিতে ছয় হামলাকারীর সবাই নিহত হন বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার।
ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে আইভরি কোস্টের প্রেসিডেন্ট অ্যালাসেন আউত্তারা বলেন, “আজ বিকালে বাসসামের সৈকতে ছয় হামলাকারীর হামলায় দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমাদের ১৪ জন বেসামরিক ও বিশেষ বাহিনীর দুই সেনা নিহত হয়েছেন।”
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সৈকতে যাওয়ার একটি হাঁটাপথ ধরে বন্দুকধারীরা সৈকতে হাজির হয়, সেখানে সাগরে গোসলরত ও সৈকতে সূর্যস্নানরতদের লক্ষ করে গুলিবর্ষণ করে। এরপর সৈকতের পাশে থাকা পর্যটকে ঠাসা হোটেলগুলোতে গিয়ে দুপুরের খাবার গ্রহণরত পর্যটকদের লক্ষ করে গুলি চালায়।
ম্যারি বাসোলি নামের এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, “তারা গুলিবর্ষণ শুরু করার সঙ্গে সঙ্গেই সবাই দৌড়াতে শুরু করেন। নারী ও শিশুরা দৌড়ে গিয়ে লুকিয়ে পড়ে। তারা যাকেই দেখছিল, গুলি করছিল।” নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা এলাকাটি ঘিরে ফেলে। তারা লোকজনকে সরিয়ে নিয়ে বন্দুকধারীদের সঙ্গে লড়াই শুরু করে।

শেয়ার